আইপিএলের জমজমাট লড়াই শুরু হবে আজ

43
এমএনএ ডেস্ক রিপোর্ট : ফ্রাঞ্ছাইজিভিত্তিক সবচেয়ে বড় ক্রিকেট লিগ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) জমজমাট লড়াই শুরু হবে আজ শনিবার রাতে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যকার ম্যাচ দিয়েই পর্দা উঠছে টুর্নামেন্টের একাদশ আসরের।
আজ শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে। এছাড়া ফাইনাল ম্যাচটিও অনুষ্ঠিত হবে এ স্টেডিয়ামেই। লিগ পর্ব, কোয়ালিফাইয়ার ও এলিমিনেটরের লড়াই শেষে আগামী ২৭ মে ফাইনাল দিয়ে শেষ হবে আকর্ষণীয় এ টুর্নামেন্ট।
বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য এবারের আইপিএলের অন্যতম বড় আকর্ষণ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ঠিকানা বদলে মুস্তাফিজুর রহমান যে এবার খেলছেন মুম্বাইয়ের হয়ে! তিনবারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন দলটির প্রথম ম্যাচে মুস্তাফিজকে দেখা যাবে কি-না, সেটা অবশ্য এখনও নিশ্চিত নয়। সেটা মূলত দলটিতে বিদেশি বোলারদের প্রাচুর্যের কারণেই। মুস্তাফিজ ছাড়াও এই দলে আছেন প্যাট কামিন্স ও মিচেল ম্যাকক্লেনেগানের মতো অভিজ্ঞ পেসার।
এছাড়া সাত-সাতটি বছর কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার পর এবারই প্রথম আইপিএলে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলছেন সাকিব আল হাসান। আগের দুই বছর ভারতের দক্ষিণী এই ফ্র্যাঞ্চাইজিটির হয়েই খেলেছিলেন মুস্তাফিজ। হায়দরাবাদকে ঘিরে বাংলাদেশিদের যে একটা সমর্থন আছে তা অটুটই থাকছে সাকিব আল হাসানের কারণে। মুস্তাফিজকে ছেড়ে হায়দরাবাদও সাদরে বরণ করে নিয়েছে সাকিবকে।
আইপিএল আকর্ষণীয় হলেও গত কয়েকটি বছর টুর্নামেন্টে বেশ কিছু কলঙ্কজনক ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট সিরিজে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিও নতুন করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।
বল টেম্পারিংয়ের দায়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া স্মিথ এবং ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও এবারের আসরে এ দু’জনকে টুর্নামেন্টে অংশ নিতে দিচ্ছে না।
দুর্নীতির দায়ে দুই বছরের নিষিদ্ধাদেশ কাটিয়ে টুর্নামেন্টে ফিরছে স্মিথের রাজস্থান রয়্যালস। সুতরাং অধিনায়ক স্মিথকে না পাওয়াটাও দলের জন্য বড় এক ধাক্কা।
বেটিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে দুই বছরের নিষিদ্ধাদেশ কাটিয়ে টুর্নামেন্টে ফিরছে চেন্নাই সুপার কিংসও।
দুর্নীতি অভিযোগে বৃটেনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে রয়েছেন আইপিএল প্রতিষ্ঠাতা ললিত মোদি। মামলা থাকায় দেশে ফিরতে অস্বীকার করেছেন তিনি। তবে নতুন করে কোন প্রকার বিতর্ক এড়িয়ে চলতে দৃঢ় প্রত্যয়ী ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।
আইপিএলে এবারও আগের মতোই বিকেলের ম্যাচগুলো শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সাড়ে ৪টায়। আর সন্ধ্যার ম্যাচগুলো রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হবে।
তবে অন্য বারের চেয়ে এবার সূচিতে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো -এবারে দু’টি করে ম্যাচের দিনগুলো শুধুমাত্র শনি এবং রবিবার রাখা হয়েছে।
২০১৮ আইপিএলের পূর্ণাঙ্গ সূচি
৭ এপ্রিল : মুম্বাই বনাম চেন্নাই (মুম্বাই)
৮ এপ্রিল : দিল্লি বনাম পাঞ্জাব (দিল্লি)।
৮ এপ্রিল : কলকাতা বনাম বেঙ্গালুরু (কলকাতা)
৯ এপ্রিল : হায়দরাবাদ বনাম রাজস্থান (হায়দরাবাদ)
১০ এপ্রিল : চেন্নাই বনাম কলকাতা (চেন্নাই)
১১ এপ্রিল : রাজস্থান বনাম দিল্লি (জয়পুর)
১২ এপ্রিল : হায়দরাবাদ বনাম মুম্বাই (হায়দরাবাদ)
১৩ এপ্রিল : বেঙ্গালুরু বনাম পাঞ্জাব (বেঙ্গালুরু)
১৪ এপ্রিল : মুম্বাই বনাম দিল্লি (মুম্বাই),
১৪ এপ্রিল : কলকাতা বনাম হায়দরাবাদ (কলকাতা)
১৫ এপ্রিল : বেঙ্গালুরু বনাম রাজস্থান (বেঙ্গালুরু),
১৫ এপ্রিল : পাঞ্জাব বনাম চেন্নাই (ইন্দোর)
১৬ এপ্রিল : কলকাতা বনাম দিল্লি (কলকাতা)
১৭ এপ্রিল : মুম্বাই বনাম বেঙ্গালুরু (মুম্বাই)
১৮ এপ্রিল : রাজস্থান বনাম কলকাতা (জয়পুর)
১৯ এপ্রিল : পাঞ্জাব বনাম হায়দরাবাদ (ইন্দোর)
২০ এপ্রিল : চেন্নাই বনাম রাজস্থান (চেন্নাই)
২১ এপ্রিল : কলকাতা বনাম পাঞ্জাব (কলকাতা),
২১ এপ্রিল : দিল্লি বনাম বেঙ্গালুরু (দিল্লি)
২২ এপ্রিল : হায়দরাবাদ বনাম চেন্নাই (হায়দরাবাদ),
২২ এপ্রিল : রাজস্থান বনাম মুম্বাই (জয়পুর)
২৩ এপ্রিল : পাঞ্জাব বনাম দিল্লি (ইন্দোর)
২৪ এপ্রিল : মুম্বাই বনাম হায়দরাবাদ (মুম্বই)
২৫ এপ্রিল : বেঙ্গালুরু বনাম চেন্নাই (বেঙ্গালুরু)
২৬ এপ্রিল : হায়দরাবাদ বনাম পাঞ্জাব (হায়দরাবাদ)
২৭ এপ্রিল : দিল্লি বনাম কলকাতা (দিল্লি)
২৮ এপ্রিল : চেন্নাই বনাম মুম্বাই (চেন্নাই)
২৯ এপ্রিল : রাজস্থান বনাম হায়দরাবাদ (জয়পুর),
২৯ এপ্রিল : বেঙ্গালুরু বনাম কলকাতা (বেঙ্গালুরু)
৩০ এপ্রিল : চেন্নাই বনাম দিল্লি (চেন্নাই)
১ মে : বেঙ্গালুরু বনাম মুম্বাই (বেঙ্গালুরু)
২ মে : দিল্লি বনাম রাজস্থান (দিল্লি)
৩ মে : কলকাতা বনাম চেন্নাই (কলকাতা)
৪ মে : পাঞ্জাব বনাম মুম্বাই (মোহালি)
৫ মে : চেন্নাই বনাম বেঙ্গালুরু (চেন্নাই),
৫ মে : হায়দরাবাদ বনাম দিল্লি (হায়দরাবাদ)
৬ মে : মুম্বাই বনাম কলকাতা (মুম্বাই),
৬ মে : পাঞ্জাব বনাম রাজস্থান (মোহালি)
৭ মে : হায়দরাবাদ বনাম বেঙ্গালুরু (হায়দরাবাদ)
৮ মে : রাজস্থান বনাম পাঞ্জাব (জয়পুর)
৯ মে : কলকাতা বনাম মুম্বাই (কলকাতা)
১০ মে : দিল্লি বনাম হায়দরাবাদ (দিল্লি)
১১ মে : রাজস্থান বনাম চেন্নাই (জয়পুর)
১২ মে : পাঞ্জাব বনাম কলকাতা (মোহালি),
১২ মে : বেঙ্গালুরু বনাম দিল্লি (বেঙ্গালুরু)
১৩ মে : চেন্নাই বনাম হায়দরাবাদ (চেন্নাই),
১৩ মে : মুম্বাই বনাম রাজস্থান (মুম্বাই)
১৪ মে : পাঞ্জাব বনাম বেঙ্গালুরু (মোহালি)
১৫ মে : কলকাতা বনাম রাজস্থান (কলকাতা)
১৬ মে : মুম্বাই বনাম পাঞ্জাব (মুম্বাই)
১৭ মে : বেঙ্গালুরু বনাম হায়দরাবাদ (বেঙ্গালুরু)
১৮ মে : দিল্লি বনাম চেন্নাই (দিল্লি)
১৯ মে : রাজস্থান বনাম বেঙ্গালুরু (জয়পুর)
১৯ মে : হায়দরাবাদ বনাম কলকাতা (হায়দরাবাদ)
২০ মে : দিল্লি বনাম মুম্বাই (দিল্লি),
২০ মে : চেন্নাই বনাম পাঞ্জাব (চেন্নাই)
২২ মে : প্রথম কোয়ালিফায়ার (মুম্বাই)
২৩ মে : এলিমিনেটর ( ঠিক হয়নি)
২৫ মে : দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ( ঠিক হয়নি)
২৭ মে : ফাইনাল (মুম্বাই)।