‘আইফোন ১১’র তিন মডেল উন্মুক্ত করলো অ্যাপল

এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : প্রযুক্তিপ্রেমীদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বহুল কাঙ্ক্ষিত ‘আইফোন ১১’ উন্মুক্ত করলো প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। আগের ধারাবাহিকতায় নতুন ফোনের এবারও তিনটি মডেল উন্মুক্ত করা হয়েছে।

মডেলগুলো হলো- আইফোন ১১, আইফোন ১১ প্রো এবং আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স। নতুন ফোনগুলো পাওয়া যাবে কয়েকটি নতুন রংয়েও।

৬ দশমিক ১ ইঞ্চি পর্দার’ আইফোন ১১’ এর লিক্যুইড রেটিনা ডিসপ্লে, যার চিপসেট এ১৩ বায়োনিক। ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার হ্যান্ডসেটটি গ্লাস ডিজাইনে পাওয়া যাবে বেগুনি, সাদা, সবুজ, হলুদ , কালো ও লাল রঙে। যার মূল্য শুরু হবে ৬৯৯ ডলার (৫৮ হাজার ৭১৬ টাকা) থেকে।

ওএলইডি আইফোন ১১ প্রো’র পর্দা হবে ৫ দশমিক ৮ ইঞ্চি এবং আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স’র পর্দা হবে ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চি। প্রতিটি আইফোনে আছে নতুন এ১৩ বায়োনিক প্রসেসর। অ্যাপলের নিজস্ব তৈরি প্রসেসরটি এখন পর্যন্ত স্মার্টফোনের জন্য নির্মিত সবচেয়ে দ্রুতগতির সিপিইউ।

এছাড়াও, আইফোনগুলো সাপোর্ট করবে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং, কিউআই ওয়্যারলেস চার্জিং ও রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং। নতুন ফোনগুলোর ব্যাটারি আগের ফোনের তুলনায় দীর্ঘস্থায়ী হবে বলে দাবি অ্যাপলের।

ম্যাট ফিনিশিংয়ের আইফোন ১১ প্রো ও আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স পাওয়া যাবে সুবজ, ধুসর, রুপালি ও সোনালি রঙে। আইফোন ১১ প্রো’র মূল্য শুরু হবে ৯৯৯ ডলারে (৮৩ হাজার ৯১৬ টাকা) , আর আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স’র মূল্য শুরু হবে এক হাজার ৯৯ ডলারে (৯২ হাজার ৩১৬ টাকা)। দুটি ফোনেই প্রথমবার পেছনে তিন ক্যামেরার সন্নিবেশ করেছে অ্যাপল।  ফ্রন্ট ক্যামেরাসহ চারটিতেই একসাথে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন গ্রাহক।

আগামী শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) থেকে ফোনগুলোর প্রি-অর্ডার শুরু হবে। যা স্টোরে মিলবে ২০ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার)।

আইফোন ১১

ফোনটিতে আছে ৬ দশমিক ১ ইঞ্চির লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে। ফোনটির পেছনের আছে ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড ক্যামেরা ও ২এক্স অপটিকাল জুমসহ ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা।

সামনে আছে ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এতে স্লোমশনে সেলফি ভিডিও করার ফিচার এনেছে অ্যাপল।

ব্যাটারির শক্তি ৩১১০ এমএএইচ। ফোনটি ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ, ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৪ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজে পাওয়া যাবে।

আইফোন ১১ প্রো

ফোনটিতে আছে ওএলইডি প্যানেল সমৃদ্ধ ৫ দশমিক ৮ ইঞ্চির ডিসপ্লে।

ফোনটিতে আছে এর ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ১২ মেগাপিক্সেলের টেলিফোটো লেন্স। এর সামনেও রয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ব্যাটারির শক্তি ৩১৯০ এমএএইচ। ফোনটি ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ,এবং ৬ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি এবং ৬ জিবি র‌্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ সংস্করণে পাওয়া যাবে।

আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স

যারা উন্নত প্রযুক্তির ফোন চান তাদের কথা ভেবে আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স তৈরি করেছে অ্যাপল। ওএলইডি প্যানেলে তৈরি ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির ফোনটিতে আছে সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে। আইফোন ১১ প্রো আর আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্সের ক্যামেরা ফিচার, র‌্যাম ও স্টোরেজ একই। ফোনটির ব্যাটারির শক্তি ৩৫০০ এমএএইচ।

এর আগে অ্যাপল ওয়াচের নতুন সিরিজ ৫ উপস্থিত অতিথিদের সামনে তুলে ধরা হয়। যা আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে পাওয়া যাবে। এর জিএসপি মডেলের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৯৯ ডলার, আর সেলুলার মডেলের মূল্য ৪৯৯ ডলার

নতুন এ ওয়াচে রেটিনা ডিসপ্লের সংযোজন করা হয়েছে। এটি দিনে ১৮ ঘণ্টা ব্যাটারি লাইফ দিতে সক্ষম হবে বলে দাবি অ্যাপলের। যা আপডেট নেবে ওয়াচওস৬। একইসঙ্গে কমানো হয়েছে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৩ এর মূল্য।

অনুষ্ঠানে সপ্তম জেনারেশনের আইপ্যাড উন্মুক্ত করা হয়। ১০.২ ইঞ্চি রেটিনা ডিসপ্লে পর্দার এ ডিভাইসে ব্যবহার করা হয়েছে এ১০ ফিউশন চিপসেট। নতুন এ আইপ্যাডের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩২৯ ডলার, যার অপারেটিংয়ে রয়েছে আইপ্যাডওস। তবে শিক্ষার্থীদের জন্য এর মূল্য পড়বে ২৯৯ ডলার।

এছাড়া অনুষ্ঠানে স্ট্রিমিং টিভি সার্ভিস অ্যাপল টিভি প্লাস উন্মুক্ত করা হয়। যা আগামী ১ নভেম্বর থেকে বিশ্বের ১০০টি দেশের মানুষ দেখতে পারবেন। এজন্য সাবস্ক্রিপশন ফি ধরা হয়েছে ৪ দশমিক ৯৯ ডলার। আইফোন আইপ্যাড ও ম্যাকের গ্রাহকরা পাবেন এক বছরের ফ্রি সাবস্ক্রিপশন।

x

Check Also

হালকা শীতের পোশাকে হয়ে উঠুন ফ্যাশনেবল

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : এ বছর নভেম্বরের মাঝামাঝিতে হালকা শীতের আমেজ চলে এসেছে। ঢাকায় হালকা ...

Scroll Up