আতিকুলকে মন্ত্রী, খালেক-লিটনকে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা

এমএনএ রিপোর্ট : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামকে মন্ত্রীর মর্যাদা দেয়া হয়েছে। এছাড়া রাজশাহীর মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও খুলনার মেয়র তালুকদার আবদুল খালেককে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা দিয়েছে সরকার।

স্ব-স্ব পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালে তারা সরকার নির্ধারিত পদমর্যাদার পাশাপাশি বেতন-ভাতা ও আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

আজ মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম স্বাক্ষরিত এই তিন মেয়রের পদমর্যাদা নির্ধারণ করে আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এ বিষয়টি শিগগির কার্যকর করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশে বর্তমানে ১২টি সিটি করপোরেশেন রয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন মন্ত্রী এবং নারায়ণগঞ্জ সিটির মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী উপমন্ত্রীর পদমর্যাদায় অধিষ্ঠিত রয়েছেন।

মেয়র আনিসুল হক মারা যাওয়ার পর গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির অংশগ্রহণবিহীন নিরুত্তাপ ডিএনসিসি মেয়র নির্বাচনে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককেও সরকার মন্ত্রীর পদমর্যাদা দিয়েছিল।

এর আগে গত বছরের ৩০ জুলাই রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে হারিয়ে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন। অন্যদিকে গত বছরের ১৫ মে খুলনার মেয়র নির্বাচিত হন আরেক আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক।

সিটি করপোরেশন আইনে মেয়রদের পদমর্যাদার বিষয়ে কিছু বলা নেই। সরকার কোনো কোনো মেয়রের পদমর্যাদা নির্ধারণ করে দেয়।

বিগত বিএনপি সরকারের আমলে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র সাদেক হোসেন খোকাকে মন্ত্রীর পদমর্যাদা দেওয়া হয়েছিল।

মেয়রদের পদমর্যাদা নির্ধারিত না থাকায় রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে তাদের প্রটোকল নিয়ে মাঝেমধ্যে সমস্যা দেখা দেয় বলে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তরা বলে আসছিলেন।

x

Check Also

ভারতের লোকসভায় বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিল পাস

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : বিরোধীরা অসাংবিধানিক বললেও সাত ঘণ্টা বিতর্ক শেষে গতকাল সোমবার মধ্যরাতে ভারতের ...

Scroll Up