আবরার হত্যায় ছাত্রলীগ নেতা অমিত সাহা গ্রেপ্তার

এমএনএ রিপোর্ট : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক অমিত সাহাকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার সবুজবাগ থেকে তাকে আটক করা হয়। মামলার এজাহারে অমিতের নাম না থাকলেও তদন্তে তার নাম এসেছে। একারণেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অমিত সাহা বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ১৬তম ব্যাচের ছাত্র। তিনি বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের আইনবিষয়ক উপ-সম্পাদক।

ডিবি সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অমিতকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হবে। পরে যদি আবরার হত্যার ঘটনায় সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় তাহলে এ মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।

বুয়েটের শেরে বাংলা হলের যে ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়; সেই কক্ষেই থাকতেন অমিত সাহা। আবরার হত্যার সঙ্গে তার সরাসরি সংশ্লিষ্ঠতার অভিযোগ থাকলেও মামলায় তাকে আসামি না করায় এবং তাকে গ্রেপ্তার না করায় সমালোচনা চলছিল।

আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডে সন্দেহভাজন হওয়া সত্ত্বেও হত্যাকাণ্ডে জড়িত ১৯ জনের তালিকায় অমিত সাহার নাম না থাকা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা চলছিল। অবশেষে তাকে গ্রেপ্তার করা হলো।

আবরার ফাহাদ হলে আছেন কিনা সে বিষয়ে প্রথম খোঁজ নিয়েছিলেন অমিত সাহা। ঘটনার দিন সন্ধ্যায় অমিত সাহা আবরারের এক বন্ধুকে ইংরেজি অক্ষরে ‘আবরার ফাহাদ হলে আছে কিনা’ মেসেজ দেন। এ ধরনের একটি স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ১৭তম ব্যাচের ওই শিক্ষার্থী নিজের পরিচয় প্রকাশ করতে না চাওয়ায় তারই এক সিনিয়র এ বিষয়টি ফেসবুকে প্রকাশ করেন।

x

Check Also

আবরার হত্যার দায়ে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করার দাবি

এমএনএ রিপোর্ট : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার দায়ে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ ...

Scroll Up