এক্সপেরিয়া এক্স বিশ্বের সেরা ক্যামেরা ফোন

এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : সনির তৈরি ক্যামেরা সেন্সর কেবল নিজেদের যন্ত্রেই যে ব্যবহৃত হয় না নয়। সনির প্রতিযোগীরাও এই সেন্সর ব্যবহার করে থাকে। যেমন অ্যাপল বা হুয়াউই। সনি ঘোষণা দিয়েছে শীঘ্রই এক্সপেরিয়া এক্স নামে বিশ্বের সেরা একটি ক্যামেরা ফোন বাজারে আনতে যাচ্ছে।

এর মধ্যে সনি যদি নিজেদের জন্যে ক্যামেরার বিশেষ প্রযুক্তি বানিয়ে থাকে, তবে তার সেরাদের সেরাটাই হবে বলে আশা করা যায়।

সেন্সরের গুণগত মানকে শীর্ষে নিতেই তাদের এ প্রচেষ্টা। গত ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস-এ সনি ঘোষণা করেছে এক্সপেরিয়া এক্স মডেলের স্মার্টফোনের কথা। আর এতে ক্যামেরার বিষয়ে জোর দেওয়া হয়েছে।

Sony-Experia-X-performance

এক্সপেরিয়া এক্স এখন পর্যন্ত বাজারে আসেনি। তবে নমুনা বানিয়ে তা বিশেষজ্ঞদের হাত তুলে দেওয়া হয়েছে।

সি নেটের বিশেষজ্ঞ এই বিশেষ ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে যান টোকিওর বৈচিত্র্যময় সব বাগানে। নমুনা পণ্য হিসাবে ক্যামেরাটি কয়েকবার নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়।

তবে ২৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরার মনোমুগ্ধকর ফিচারের সন্ধান করেছেন তিনি। এর অটোফোকাস ফিচারটি দারুণ উপভোগ্য। এটি ডিজাইন করা হয়েছে বেশ কিছু সমস্যা দূর করতে যা বহু টেক জায়ান্ট করতে পারেনি।

চলমান কিছুকে ঘোলা না করেই কিভাবে ক্যামেরা পরিষ্কারভাবে বন্দি করা যায় তার সমাধান দেওয়া হয়েছে এতে। মূলত লেন্সের ফোকাস ও শাটার ক্লিকের মাঝে ইন্দ্রিয়গ্রাহ্য বিলম্ব ঘটে যায়। এর জন্যে একটি সমাধান বের করেছে সনি।

বস্তুর চলমান অবস্থা দেখে ধারণা দেওয়া হবে কখন শাটারে ক্লিক পড়া প্রয়োজন। বিশেষ এই ফিচার ব্যবহার করতে হলে যার ছবি তুলবেন ফোনের পর্দায় তার ওপর ট্যাপ করতে হবে। এতে একটি হলুদ বাক্স এসে বস্তুটিকে চিহ্নিত করবে। একবার লক হয়ে গেলে ক্যামেরা বস্তুটিকে ফলো করতে থাকবে।

এক্সপেরিয়া এক্স-এ তোলা প্রতিটা ছবি মুগ্ধ করেছে বিশেষজ্ঞকে। কাছে থেকে ক্ষুদ্র কোনো বস্তুর ছবি তোলা বেশি আনন্দ দিয়েছে বলে মনে করেন তিনি। এতে তোলা ছবি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ বা আইফোন ৬এস-এর মতো হবে না।

Sony-Xperia-X

এই স্মার্টফোনের ক্যামেরা ব্যবহার নতুন অভিজ্ঞতা দেবে। ছবি তুলতে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ ধরে এগোবে ক্যামেরা যাকে সনি বলছে ‘ক্যাপচার সিক্যুয়েন্স’।

ক্যামেরা ছবি তোলার জন্যে প্রস্তুত হওয়াসহ শাটারের কাজ ও ছবি প্রসেসিংয়ের গোটা ব্যাপারই এর মধ্যে রয়েছে। খুব দ্রুত একটি মুহুর্তকে ক্যামেরায় আনতে দ্রুতগতিতে ক্যামেরা চালুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেলফি তুলতে সামনের ক্যামেরাটিতেও বিশেষত্ব দেওয়া হয়েছে।

এটি ১৩ মেগাপিক্সেলের এফ২.০ ইমেজ সেন্সর ক্যামেরা। সনির জেড৫ প্রিমিয়ামের সামনের ক্যামেরার চেয়েও ২.৬ গুন বড়। দুটো ক্যামেরাতেই কম আলোতে লক্ষ্যবস্তুকে পরিষ্কারভাবে চিহ্নিত করা হবে।

এক্সপেরিয়া এক্স হতে পারে সেরা ক্যামেরা ফোন। পয়সা খরচ করে কেনার মতো একটি ফোন।

ফোনটি বাজারে আসার আগে অবশ্যই অন্যান্য সমস্যা ঠিকঠাক করেই আসবে। তারও আগে পুরোপুরি আরেকবার রিভিউ হবে। তখন এটি নিজেকে সেরা বলে শতভাগ প্রমাণ করবে। সূত্র : সি নেট

x

Check Also

করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু

এমএনএ রিপোর্ট : করোনার উপসর্গ জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে গতকাল ...

Scroll Up