এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন লিওনেল মেসি

এমএনএ স্পোর্টস ডেস্ক : কোপা আমেরিকার রেফারিংয়ের প্রতি অভিযোগের আঙুল তুলে বেশ ভালো ঝামেলাই পড়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। সেমিফাইনাল থেকে আর্জেন্টিনা ছিটকে পড়ার পর ক্ষোভ প্রকাশ করে আয়োজক ব্রাজিল এবং ম্যাচ রেফারিদের ‘দুর্নীতিপরায়ণ’ অভিযুক্ত করে এবার এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হতে হলো মেসিকে।

শুধু ম্যাচ রেফারিদের কথা শুনিয়ে ক্ষান্ত হননি, পাশাপাশি প্রশ্ন তুলেছেন দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল কনফেডারেশনের (কনমেবল) -এর দায়িত্ববোধ নিয়েও। যার ফলশ্রুতিতে পড়তে হয়েছে শাস্তির মুখে। শাস্তি যে তিনি পাবেন তা আগেই আন্দাজ করা গেলেও এবার সেই শাস্তির ঘোষণাই এলো। তবে অল্পতেই বেঁচে গেছেন মেসি।

কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড দেখা লিওনেল মেসি নতুন করে এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন।

পাঁচবারের ‘ব্যালন ডি’অর’ জয়ী খেলোয়াড়ের ওপর এতটা কঠোর হয়নি কনমেবল। এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে তাকে, সঙ্গে ১৫০০ ডলার জরিমানা। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ২০২২ বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলতে পারবেন না মেসি।

মেসির পাশাপাশি শাস্তি পেয়েছেন আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান ক্লদিও তাপিয়াও। ফিফার অফিসিয়াল প্রতিনিধি পদ থেকে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধানকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাপিয়াও কোপা আমেরিকা চলার সময় কনমেবলের সমালোচনাও মেতে উঠেছিলেন।

চিলির বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধে গারি মেদেলের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কিতে ‘বিতর্কিতভাবে’ লালকার্ড দেখেন মেসি। আর্জেন্টিনা ২-১ গোলে জেতার পর পদক নিতে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যাননি তিনি। পরে আয়োজক ও রেফারিরা ব্রাজিলকে শিরোপা জেতাতে দুর্নীতি করেছে বলে মন্তব্য করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।

কনমেবল গতকাল মঙ্গলবার জানায়, মেসির মন্তব্যগুলো মেনে নেওয়া যায় না। তবে তারা পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে কঠিন শাস্তি দেয়নি।

এছাড়া আর্জেন্টিনার ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান ক্লাওদিও তাপিয়াকে কনমেবল ফিফায় তাদের প্রতিনিধির পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে। তাপিয়াও ব্রাজিলে কোপা আমেরিকা চলার সময় কনমেবলের কঠোর সমালোচনা করেছিলেন।

x

Check Also

তাইওয়ানের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের ৬৬ যুদ্ধবিমান বিক্রি

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : চীনের সঙ্গে চলমান ‘বাণিজ্য যুদ্ধ’সহ বিভিন্ন সংকটের মধ্যেই তাইওয়ানের কাছে ৬৬টি ...

Scroll Up