ওমরাহ ভিসা স্থগিত করল সৌদি আরব

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় গত সোমবার থেকে ওমরাহ ভিসার জন্য আবেদন গ্রহণ বন্ধ করে দিয়েছে। দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ বিষয়ক জাতীয় কমিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বিন বদি বলেছেন, হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় ওমরাহ ভিসা দেয়া বন্ধ করেছে। আরবি জ্বিলহাজ মাসের ১৫ অর্থাৎ আগামী ১৫ আগস্ট থেকে পুনরায় এই ভিসা দেয়া হবে।

হজ ও ওমরাহ বিষয়ক জাতীয় কমিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরও জানান, আবেদন পড়ার পাঁচ দিনের মধ্যে ওমরাহ ভিসা প্রদান করা হবে। তবে এই ভিসার মেয়াদ কোনোভাবেই এক মাসের বেশি অতিক্রম করবে না।

চলতি বছরে রেকর্ড পরিমাণ ৭৬ লাখ ৫০ হাজার ৭৩৬ জনকে ওমরাহ ভিসা প্রদান করেছে সৌদি আরব। মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ওমরাহ ভিসা পাওয়া সেসব হাজির ৭৩ লাখ ৯৩ হাজার ৬৫৭ জন ইতোমধ্যে সৌদি পৌঁছেছেন।

ওমরাহ হজ পালন করতে যেসব হাজি সৌদি পৌঁছেছেন তাদের মধ্যে ৬৫ লাখ ৫০ হাজার ৫২০ জন আকাশ পথে দেশটিতে প্রবেশ করেন। বাকিদের মধ্যে ৭ লাখ ৭ হাজার ৯৫৫ জন স্থলপথে এবং ১ লাখ ৩৫ হাজার ১৮২ জন সমুদ্রপথে সৌদিতে প্রবেশ করেন।

এসব হাজির মধ্যে সবচেয়ে বেশি হলো পাকিস্তানের। দেশটির ১৬ লাখ ৫৭ হাজার ৭৭৭ জন সৌঁদি গেছেন ওমরাহ হজ পালন করতে। পাকিস্তানের পরেই ৯ লাখ ৬৭ হাজার ১২৫ জন নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে ইন্দোনেশিয়া।

এরপর ধারবাহিকভাবে ভারতের ৬ লাখ ৫০ হাজার ৪৮০, মিসরের ৫ লাখ ৩৯ হাজার ৪৫, আলজেরিয়ার ৩ লাখ ৬৫ হাজার ৬২৮, ইয়েমেনের ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৬১৮ তুরস্কের ৩ লাখ ২১ হাজার ৪৯৪ মালয়েশিয়ার ২ লাখ ৭৮ হাজার ৬৭৪, ইরাকের ২ লাখ ৭৭ হাজার ৫৭১ এবং জর্ডানের ২ লাখ ১৬৫ জন সৌদি গেছেন ওমরাহ পালন করতে।

সৌদির ন্যাশনাল কমিটি ফর দ্য হজ অ্যান্ড ওমরাহর তথ্য মতে, বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পাকিস্তানি নাগরিকরাই এই ওমরাহ হজ পালন করেন। এরপর যথাক্রমে শীর্ষে রয়েছেন- ইন্দোনেশিয়া, ভারত, মিশর, আলজেরিয়া, ইয়েমেন, তুরস্ক, মালয়েশিয়া, ইরাক ও জর্ডানের ইসলাম ধর্মাবলম্বী লোকজন।

সম্প্রতি সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানের ভিশন-২০৩০ সামনে রেখে সরকার দেশটিতে ওমরাহ পালনে ইচ্ছুকদের ব্যাপক হারে ভিসা প্রদান শুরু করেছে। যার অংশ হিসেবে আগামী ২০২২ সালের মধ্যে এই ওমরাহ পালনকারীর সংখ্যা প্রায় দেড় কোটি এবং পরবর্তী ২০৩০ সালের মধ্যে তা তিন কোটিতে উন্নীত করার বৃহৎ লক্ষ্য রয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষের।

x

Check Also

১১৭ দেশের মধ্যে ক্ষুধার সূচকে বাংলাদেশ ৮৮তম

এমএনএ রিপোর্ট : বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ১১৭ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান গত বছরের চেয়ে দুই ...

Scroll Up