খালেদা জিয়া দুর্নীতিবাজ প্রমাণিত হয়েছে : আ.লীগ

এমএনএ রিপোর্ট : আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে দুর্নীতিবাজ তা প্রমাণিত হয়েছে তাঁর সাজাপ্রাপ্তিতে। এটা আওয়ামী লীগ বা বিএনপির বিষয় নয়। এখানে আদালত ও আসামিদের বিষয় নয়। তবে এ রায়ের মধ্য দিয়ে এটা প্রমাণিত হয়েছে যে বাংলাদেশে কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়।
হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমরা আগে বলেছি, খালেদা জিয়া ও তাঁর ছেলে তারেক রহমান দুর্নীতিবাজ। কিন্তু এ রায়ের পর এটা প্রমাণিত হয়েছে। খালেদা জিয়া ও বিএনপি এ মামলার কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত করার জন্য সময়ক্ষেপণ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ওপর হামলা করেছে। আজও রায়ের চেষ্টা ভন্ডুল করার চেষ্টা চালিয়েছিল তারা। সারা দেশে একটা ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়েছে। এ রায়ে (আওয়ামী লীগ) সন্তুষ্ট বা অসন্তুষ্ট হওয়ার বিষয় নয়। আইন সবার জন্য সমান, এটাই আসল বিষয়।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আজ বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এর পরপরই ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে ব্রিফিং করে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন।
পরে দলের সাধারণ সম্পাদক এ বিষয়ে বিস্তারিত ব্রিফ করবেন বলেও জানানো হয়।
ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রাজ্জাক, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুর নাহার, উপদপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।
আজকের এ রায়কে ঘিরে আওয়ামী লীগের এ কার্যালয়ে সকাল থেকেই নেতা–কর্মীদের ভিড় ছিল। তাঁরা টেলিভিশনে চোখ রাখেন।
এদিকে খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হওয়ায় রাজধানী জুড়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আনন্দ-উল্লাস এবং মিষ্টি বিতরণ করতে দেখা গেছে।
রায় ঘোষণার পর পরই আওয়ামীলীগ কর্মীরা উল্লাসে পেটে পড়েন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে বের হয় আনন্দ মিছিল। ধানমণ্ডি আওয়ামীলীগের কর্মীরা রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে মিষ্টি বিতরণ করেন। অন্য সব এলাকায়ও তাদের উল্লাস করতে দেখা যায়।
x

Check Also

ত্রিপল সেঞ্চুরি পেরোল পেঁয়াজের কেজি!

এমএনএ রিপোর্ট : কোনো আশ্বাস, অভিযান বা হুঁশিয়ারিতেও এখন আর কোন কাজ হচ্ছে না। পেঁয়াজের ...

Scroll Up