গাঁটছড়া বাঁধলেন সোনম-আনন্দ

15
এমএনএ বিনোদন ডেস্ক : অবশেষে গাঁটছড়া বাঁধলেন বলিউড অভিনেত্রী ও স্টাইল আইকন সোনম কাপুর ও দিল্লির ব্যবসায়ী আনন্দ আহুজা। গত দুই দিনের মেহেদি ও সংগীত অনুষ্ঠানের পর আজ মঙ্গলবার দুপুরে ধর্মীয় রীতি মেনে দীর্ঘদিনের প্রেমিক আনন্দ আহুজার সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন বলিউডের এই অভিনেত্রী। এর মধ্য দিয়েই মিস থেকে মিসেস হয়ে গেলেন ‘সাওয়ারিয়া’খ্যাত এই তারকা।
মিস্টার অ্যান্ড মিসেস আনন্দ আহুজাকে তাঁদের নতুন জীবনে স্বাগত জানিয়েছেন সবাই।
বান্দ্রা রকডেলে সোনমের খালার বাড়িতে বিয়ের সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে। বিয়েতে ৩২ বছর বয়সী সোনম কাপুর পরেছিলেন ওয়েডিং-কস্টিউম এক্সপার্ট ডিজাইনার অনুরাধা ওয়াকিল-এর ডিজাইন করা একটি সুন্দর লাল-সোনালি রঙা লেহেঙ্গা, খোপায় গাজরা, হাতে চূড়া (চুড়ি), গলায় হার ও মাথায় ঝাপটা আর আনন্দ আহুজা পরেছিলেন সোনালি রং শেরওয়ানি, সাথে পাগড়ি আর গলায় রুবি পাথরের মালা।
সোনমের বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বলিউডের নামি-দামি তারকারা। এদের মধ্যে দেখা গেছে- সাইফ আলি খান-কারিনা কাপুর খান দম্পতি, সোনমের চাচা বনি কাপুর, চাচাত বোন জানভি কাপুর, খুশি কাপুর, অভিনেত্রী রানী মুখার্জি কারিশমা কাপুর, সারা ভাস্কর, জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ, অভিনেতা অর্জুন কাপুর, অভিষেক বচ্চন ও তার বোন শ্বেতা নন্দা বচ্চনকে।
একইদিন রাত ৮টায় হবে সোনম-আনন্দর বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। মুম্বাইয়ের পাঁচ তারকা লীলা হোটেলে নব-দম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে আসবেন পরিবার ও বলিউড তারকারা।
এর আগে, গতকাল সোমবার মুম্বাইয়ের বান্দ্রার সানটেক অ্যাপার্টমেন্টের বাঙ্কিট হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে সোনম কাপুরের মেহেদী ও সংগীত অনুষ্ঠান। যেখানে নাচে-গানে অতিথিদের মাতিয়ে তুলেছিলে বলিউড তারকারা।
সোনম-আনন্দের প্রথম পরিচয় হয় পেরনিয়া কোরেশির মাধ্যমে। পেরনিয়া সোনমের সাজসজ্জার বিষয়টি তদারকি করেন। অন্যদিকে আনন্দ পেরনিয়ার ঘনিষ্ঠ বন্ধু। এদিকে পরিচয়ের একমাসের মাথায় সোনমকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় আনন্দ। তারপর থেকেই তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে।
সোনম ও আনন্দ প্রথম একসঙ্গে সবার সামনে আসেন অভিনেতা অক্ষয় কুমারের একটি পার্টিতে। হলিউড অভিনেতা উইল স্মিথের সম্মানে এই পার্টির আয়োজন করেছিলেন অক্ষয়। একই বছর সোনমের এক আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে একসঙ্গে হাজির হন এ জুটি।
শুধু তাই নয়, লন্ডনে সোনমের মায়ের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে কাপুর পরিবারের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন আনন্দ। এরপর প্রায়ই বিভিন্ন স্থানে একসঙ্গে ছুটি কাটাতে দেখা যায় তাদের। এছাড়া পরস্পরের প্রতি ভালোলাগার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্টসহ বিভিন্নভাবে প্রকাশ করেন তারা।