চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় গ্যাসের পাইপলাইন বিস্ফোরণ, নিহত ৭

এমএনএ জেলা প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের পাথরঘাটা এলাকায় গ্যাসের পাইপলাইন বিস্ফোরণে ভবনধসে সাতজন নিহত হয়েছেন। এ সময় মারাত্মক আহত অবস্থায় আরো ২৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।

আজ রবিবার সকাল ৯টার দিকে ব্রিকফিল্ড রোডে এই ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, নিহতদের মধ্যে ৬ জন পুরুষ ও একজন শিশু রয়েছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে এখনো নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

সিএমপির দক্ষিণের ডিসি মেহেদি হাসান বলেন, ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে এক ব্যক্তি আমাদের পাথরঘাটা ব্রিকফিল্ড রোডের কুঞ্জমনি ভবনে বিস্ফোরণের ঘটনাটি জানান। এ ঘটনায় ১৭ জন দগ্ধ হন।

তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) আনা হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক সাতজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। অন্যরা সেখানেই চিকিৎসাধীন।

পাঁচতলা ওই ভবনের চতুর্থ তলার বাসিন্দা স্কুলশিক্ষক অঞ্জন কান্তি দাশ জানান, সকালে বিকট বিস্ফোরণের সঙ্গে পুরো বাড়ি কেঁপে ওঠে। তার বাসার জানালার কাচ ভেঙে যায় এবং অনেক জিনিসপত্র মেঝেতে পড়ে যায়।

বিস্ফোরণের পর ভবনের সীমানাপ্রাচীর ভেঙে রাস্তায় মানুষের ওপর পড়ে। পিকআপভ্যানে বেশ কয়েকজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাদের মধ্যে পথচারীও ছিলেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি মো. মহসিন জানান, পাথরঘাটা ব্রিকফিল্ড রোডের কুঞ্জমনি ভবনে গ্যাসের পাইপলাইন বিস্ফোরণে ভবনের একাংশ ভেঙে গেছে।

এতে সাতজন মারা গেছেন এবং দগ্ধ হয়েছেন অন্তত ১০ জন। দগ্ধদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) ভর্তি করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় সাতজনকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে তাদের মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

বিষয়টি মোহাম্মদী নিউজ এজেন্সী (এমএনএ) কে নিশ্চিত করেছেন ঘটনাস্থলে দায়িত্বরত চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক পূর্ণচন্দ্র মুৎসুদ্দি।

পূর্ণচন্দ্র মুৎসুদ্দী জানান, বড়ুয়া বিল্ডিংয়ের নিচতলায় সীমানাপ্রাচীরের পাশেই হয়তো গ্যাস রাইজারে কোনো সমস্যা ছিল, লিকেজ থেকে গ্যাস বের হয়ে জমে গিয়েছিল। সকালে বাসায় রান্না করার সময় বা বাইরে থেকে কারও ফেলা সিগারেটের আগুন থেকে এ বিস্ফোরণ হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘পাথরঘাটায় গ্যাস লাইনের রাইজার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থল থেকে ১৪ জনকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে পাঠিয়েছে। বিস্ফোরণের কারণে একটি দেয়াল ধসে পড়েছে। এ ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।’

এ দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৭ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। এদের মধ্যে সাতজনকে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেছেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন মোহাম্মদী নিউজ এজেন্সী (এমএনএ) কে বলেন, সকাল ৯টার দিকে বিকট শব্দ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে আসি। মূলত বিস্ফোরণে একটি দেয়াল পথচারীদের ওপর ধসে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকিদের অবস্থা ভালো নয়।

x

Check Also

কোটি টাকারও বেশি মূল্যের পাঁচটি মোবাইল ফোন!

এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : আধুনিক যুগে মুঠোফোন ছাড়া মানুষ প্রায় অচল।কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই মুঠোফোন হয়ে ...

Scroll Up