চড়ুই পাখির মানব প্রেম!

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : চড়ুই পাখির মানব প্রেম! আজব হলেও এটাই সত্যি। ঠিক এমনটিই ঘটেছে জাপানের এক দম্পতির বেলায়। একটি চড়ুই পাখি তাদের প্রেমে পড়েছে।

সাধারণত প্রকৃতিতে এমনটা হয় না। পাখিরা কখনো স্বেচ্ছায় নিজের সঙ্গীসাথীদের ছেড়ে মানুষের কাছে যায় না। কিন্তু ব্যতিক্রম একটা চড়ুই পাখি। সে জাপানের এক বৃদ্ধ নর-নারীর এমনই প্রেমে পড়েছে যে ওদের ছেড়ে আর কোথাও যেতে চায় না। সারাক্ষণ ওদের সঙ্গে থাকে। সারাদিন একটিবারের জন্যও ওদের কাছছাড়া করে না নিজেকে। এখন সে ওই ছোট পরিবারটির আদুরে বাবুটি হয়ে আছে। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা এ নিয়ে রিপোর্ট করেছে। আর সে খবরের শিরোনাম: ‘Sparrow defies nature and joins Japanese family’।

Sperrow drop of love a Japanies Family

ঘটনাটা এরকম। জাপানের সাইতামা প্রিফেকচারের অন্তর্গত ফুকায়া অঞ্চলের বাসিন্দা বৃদ্ধা ইয়োশিকো ফুজিনো গত বছরের নভেম্বর মাসের মাঝামাঝিতে একদিন স্থানীয় স্কুলের বাচ্চাদের ট্রাফিক গাইড হিসেবে কাজ করছিলেন। হঠাৎই কোত্থেকে একটা ছোট্ট চড়ুই পাখি তাঁর কাঁধে এসে বসল। বসল তো বসল, কাঁধ থেকে নামার নামটি আর নেই। বৃদ্ধা ফুজিনোর কাঁধে চড়ে তার বাড়ি পর্যন্ত চলে এলো চড়ুইটা। এরপর আর সে ওদের ছেড়ে যায়নি। বাচ্চাদের যেমন নাম রাখা হয়, আদর করে তারাও ওর নাম রাখলেন পি চান(Pee Chan)।

ফুজিনো চড়ুইটার ব্যাপারে নিজের ভালোবাসার কথা জানালেন এভাবে: ও পরিবারের সদস্যের মতোন। খুবই স্বস্তি দেয়। (কাজ শেষে) একটা চড়ুই পাখির জন্য বাড়ি ফেরার মজাই আলাদা। আমার নাতি-নাতনীরা সবাই এখন বড় হয়ে গেছে। কেউ আর ছোটোটি নেই।’

মানে বৃদ্ধা ফুজিনোর কাছে পি চান নামের আদুরে চড়ুইটাই এখন পরিবারের সবচে ছোট সদস্য। ভিডিওটা দেখুন:

x

Check Also

এবার পুরান ঢাকায় চালু হচ্ছে চক্রাকার বাস

এমএনএ রিপোর্ট : চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে পুরান ঢাকায় পরীক্ষামূলকভাবে চক্রাকার বাস সার্ভিস চালু করা ...

Scroll Up