টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

এমএনএ রিপোর্ট : এবারের এশিয়া কাপের শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচ দিয়ে। আজ শনিবার দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথম ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

ব্যাট নেওয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘উইকেট দেখে ব্যাটিং সহায়ক মনে হচ্ছে। শেষের দিকে বোলাররা উইকেট থেকে সাহায্যে পেতে পারে। শেষে স্পিনারা বলে টার্ন পাবে। সেজন্য শুরুতে ব্যাট করা ভালো হবে মনে করছি।

শ্রীলংকা অধিনায়ক অ্যাঞ্জেল ম্যাথুস বলেন, ‘টস জিতলে আমিও ব্যাটিং নিতাম। উইকেট দেখে ব্যাটিং সহায়ক মনে হচ্ছে। শেষের দিকে সামান্য শিশির থাকবে তবে তাতে বিশেষ সুবিধা পাওয়ার কথা না। আমাদের দলে মালিঙ্গা ফিরেছেন যা দলের জন্য খুবই ভালো।’

এছাড়া এর আগের দুই আসরে টাইগাররা ফাইনাল খেলায় কিছু খেলোয়াড়ের দারুণ কিছু ব্যক্তিগত অর্জন আছে। সাকিব আল হাসান যেমন এশিয়া কাপে এক ইনিংসের বিবেচনায় সবচেয়ে বেশি স্ট্রাইক রেটের ক্রিকেটার। তার স্ট্রাইক রেট ২৭৫.০০ করে। এরপর ২৩৬.০০ স্ট্রাইক রেটে আছেন পাকিস্তানের আফ্রিদি। জয়সুরিয়ার স্ট্রাইক রেট কোন এক ইনিংসের বিবেচনায় ২০০.০০ করে। এছাড়া সেরা পাঁচে আছেন বাংলাদেশের জিয়াউর রহমান এবং মুশফিকুর রহিম। চারে থাকা জিয়ার ১৮৬.৩৬ করে স্ট্রাইক রেট আর মুশফিকের ১৮৪.০০ করে।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি আছে তিনজনের। মুশফিকুর রহিম ১১৭, অলক কাপালি ১১৫ এবং আশরাফুল ব্যক্তিগত ১০৯ রানের ইসিংস খেলেন এই প্রতিযোগিতায়। তবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রান তামিমের। তিনি কোন সেঞ্চুরি না পেলেও বেশ কিছু হাফ সেঞ্চুরি করেছেন। আর এ কারণে তার নামের পাশে আছে ৫১৭ রান। এরপর বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান মুশফিকের। তিনি ৩৯৬ রান করেছেন এশিয়ার আসরে।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের দেড়শো ছাড়ানো জুটি দুটি। তবে সেরা জুটিতে যে নামগুলো আছে তাদের কেউ এবারের এশিয়া কাপে নেই। ইমরুল কাসেয় এবং জুনায়েদ সিদ্দিকী সর্বোচ্চ ১৬০ রানের জুটি গড়েন। এরপর আনামুল হক এবং ইমরুল গড়েন ১৫০ রানের জুটি। তিনে আছে মোহাম্মদ আশরাফুল এবং রকিবুল হাসানের জুটিটি। তারা ১৪১ রানের জুটি গড়েন।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি আবদুর রাজ্জাক। তিনি ২২ উইকেট নিয়েছেন এশিয়ার আসরে। এরপর সাকিব এবং মাশরাফির নামে আছে ১২টি করে উইকেট। এশিয়া কাপের এক আসরে বাংলাদেশ ওপেনার তামিমের নামের পাশে ২৫৩ রান আছে। এরপর আছেন সাকিব আল হাসান। তিনি এক আসরে রান করেছেন ২৩৭। এশিয়া কাপে এবারও তামিম-সাকিব, মাশরাফিদের দিকে আলাদা করে চোখ থাকবে প্রতিপক্ষের।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, লিটস দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন, মাশরাফি বিন মর্তুজা, মেহেদি মিরাজ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।

শ্রীলংকা একাদশ : কুশল পেরেরা, উপুল থারাঙ্গা, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেল ম্যাথুস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, থিসারা পেরেরা, দাশুন শানাকা, দিলরুয়ান পেরেরা, সুরাঙ্গা লাকমল, লাথিস মালিঙ্গা, আমিলা আপোনসো।

x

Check Also

প্রসিকিউটর পদ থেকে তুরিন আফরোজকে অপসারণ

এমএনএ রিপোর্ট : পেশাগত অসদাচরণ, শৃঙ্খলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজকে আন্তর্জাতিক ...

Scroll Up