টাইগারদের টি-২০ স্কোয়াডের নতুন মুখই ৫ জন

25
এমএনএ স্পোর্টস ডেস্ক : শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বড় পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আজ শনিবার বিসিবি ঘোষিত টাইগারদের ১৫ সদস্যের স্কোয়াডের নতুন মুখই ৫ জন। তারা হলেন, আবু যায়েদ রাহি, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান, জাকির হাসান ও আফিফ হোসেন ধ্রুব।
আজ শনিবার বিসিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দল ঘোষণার কথা জানানো হয়।
শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টির দলে জায়গা হারিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে থাকা সাত ক্রিকেটার। তারা হলেন- মুমিনুল হক, ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাসির হোসেন, শফিউল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদ।
অন্যদিকে প্রথমবারের মতো দলে ডাক পেয়েছেন পাঁচজন— পেসার আবু জায়েদ, পেস বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হক, অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান, উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জাকির হাসান ও আফিফ হাসান।
চোটের কারণে টেস্ট সিরিজের দলে না থাকা সাকিব আল হাসানকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে রাখা হয়েছে এবং তিনি দলের নেতৃত্ব দেবেন বলে বিজ্ঞপ্তি উল্লেখ করা হয়েছে।
এছাড়া চোটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে না থাকা তামিম ইকবাল ও পেসার মোস্তাফিজুর রহমান প্রথম টি-টোয়েন্টির দলে ফিরেছেন।
এছাড়া দলে ফিরেছেন আবু হায়দার রনি। রনি সর্বশেষ টি-২০ খেলেছিলেন ২০১৬ সালের বিশ্বকাপে। ওমানের বিপক্ষে ধর্মশালায় খেলা সেই ম্যাচের পর আর জাতীয় দলে খেলা হয়নি তার। এদিকে চোট কাটিয়ে এই সিরিজ দিয়েই আবার ফিরছেন সাকিব আল হাসান।
দলের বাকি সদস্যরা হলেন, তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান, রুবেল হোসেন ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন।
আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-২০। পরদিন দুই দল চলে যাবে সিলেট।
১৭ ফেব্রুয়ারি অনুশীলন শেষে ১৮ ফেব্রুয়ারি সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০’র মধ্য দিয়ে সিরিজের সমাপ্তি ঘটবে।
প্রথম টি-টোয়েন্টির বাংলাদেশ দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, আফিফ হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, আবু জায়েদ, আবু হায়দার, মেহেদি হাসান, আরিফুল হক, জাকির হাসান।