তিন দিনে সাড়ে চার হাজার কোটি ডলার আয়!

33

এমএনএ বিনোদন ডেস্ক : হলিউডের ছবি মানেই ধামাকা। তবে এতোটা তা কল্পনা করাও মুস্কিল। আপনি কল্পনা করতে পারেন মুক্তির পর তিন দিনে ৪৩১৫ কোটি ৯১ লাখ ২৫ হাজার মার্কিন ডলার আয় করেছে হলিউড ছবি ‘দ্য ফেইট অব দ্য ফিউরিয়াস’! এই টাকা বাংলায় রুপান্তর করলে কত হবে জানেন! কল্পনাকেও হার মানায় যেনো।

মাত্র তিন দিনে এক ছবির আয় এতোটা হতে পারে তা প্রমাণ করলো ‘দ্য ফেইট অব দ্য ফিউরিয়াস’। এর মধ্য দিয়ে মুক্তির তিন দিনে সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড ভাঙল ছবিটি। এর আগে ৪২৮৭ কোটি ৫৪ লাখ ডলার আয় করে এ রেকর্ড এত দিন ছিল ‘স্টার ওয়ার্স: দ্য ফোর্স অ্যাওয়েকেনস’ ছবির ঘরে।

মাত্র তিন দিনে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজের আট নম্বর ছবিটি যে আয় করেছে, তা একটি উন্নয়নশীল দেশের বার্ষিক বাজেটের কাছাকাছি। কিন্তু হলিউডের ছবির বেলায় এটা কোনো বিষয়ই নয়! তবে নতুন এ রেকর্ড ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিরিজটিকে নিয়ে গেল অন্য এক উচ্চতায়। এই সিরিজের এবারের ছবিটি অনেক কারণেই দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল।

প্রথমত, এটি এ সিরিজের প্রথম ছবি, যাতে নেই পল ওয়াকার। মৃত্যুর পর ফাস্ট সিরিজের সপ্তম ছবিতেও এ অভিনেতাকে পেয়েছিলেন তাঁর ভক্তরা। তবে এবারেরটায় আর নেই তিনি। এবারের ছবিতে যুক্ত হয়েছেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী শার্লিজ থেরন। আগের মতোই আছেন ভিন ডিজেল, ডোয়াইন জনসন, জেসন স্ট্যাথাম। ছবির শিল্পীরা আয়ের এই নতুন রেকর্ডের খবর পেয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত। তাঁরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে।