নীরবতা ভেঙে ফিরছেন অভিনেত্রী আনোয়ারা

এমএনএ বিনোদন ডেস্ক : দীর্ঘ বিরতির পর নীরবতা ভেঙে সেলুলয়েড জীবনে ফিরছেন ঢাকাই সিনেমার কিংবদন্তী অভিনেত্রী আনোয়ারা। এ দেশে যখন সেলুলয়েডের ফিতায় ভাসতে শুরু করেছিল বাঙালির জীবনের নানা অনুভূতি, সেই সব গোড়াপত্তনের সময়ই চলচ্চিত্রে তার আগমন। বাকিটুকু কেবলই ইতিহাস।

১৯৬১ সালে ১৪-১৫ বছর বয়সে অভিনেতা আজিমের মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্রে আসেন। ১৯৬৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘বালা’ নামের চলচ্চিত্রে প্রথম নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন আনোয়ারা। তার বিপরীতে ছিলেন হায়দার শফি।

এরপর তিনি নিজেকে ঋদ্ধ করেছেন বৈচিত্র্যময় চরিত্রে। তার সেই সব চরিত্র দিয়ে সমৃদ্ধ হয়েছে বাংলাদেশের সিনেমা। মা ও দাদি-নানি চরিত্রে তিনি তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন এদেশের চলচ্চিত্রপ্রেমীদের কাছে।

দীর্ঘদিন তার দেখা নেই সিনেমায়। শারীরিক অসুস্থতা ও গল্প-চরিত্র পছন্দ না হওয়ায় কাজ থেকে দূরে সরে আছেন তিনি। সেই আনোয়ারা ফিরছেন নীরবতা ভেঙে।

তবে চলচ্চিত্রে নয়, আনোয়ারাকে দেখা যাবে নতুন একটি বিজ্ঞাপনে। আকাশ আমিনের পরিচালনায় রিচ ক্যামিকেলের গিন্নি সরিষার তেলের বিজ্ঞাপনচিত্রে দেখা মিলবে তার।

সম্প্রতি বিজ্ঞাপনটির চিত্রায়ন শেষ হয়েছে। সেটি এখন সম্পাদনার টেবিলে আছে। সম্পাদনা, কালার গ্রেডিং, গ্রাফিক্স এনিমেশন শেষ করে শিগগিরই বিভিন্ন স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচারের জন্য জমা দেয়া হবে বলে জানান নির্মাতা আকাশ আমিন।

আজিশা রহমান ইতি’র চিত্রনাট্যে বিজ্ঞাপনটিতে আরও অভিনয় করেছেন কাজী সবুজ, পুষ্পিতা পপি, আরিশা ও মুসকান।

বিজ্ঞাপন নির্মাণ সম্পর্কে আকাশ আমিন বলেন, ‘একটা ভালো পণ্যের প্রচার করতে ভালো বিজ্ঞাপনের বিকল্প নেই। আমি সেদিকটি মাথায় রেখেই চেষ্টা করেছি গিন্নি সরিষার তেলের বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করার। এখানে আনোয়ারা ম্যাডামকে নিয়ে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। এটা আমার কাছে আনন্দের।’

প্রসঙ্গত, আকাশ আমিন বেশ কিছুদিন ধরেই বিজ্ঞাপন নির্মাণ করে আসছেন। আগের বিজ্ঞাপনগুলোতে বেশ সাড়া জাগিয়েছিল। নতুন বিজ্ঞাপনচিত্রটি পর্দায় এলে নিজেকে নতুন করে আরও একবার প্রমাণের সুযোগ পাবেন বলে দাবি এই নির্মাতার।

x

Check Also

২১ আগস্ট নিয়ে রাজনীতি করছে আ.লীগ : রিজভী

এমএনএ রিপোর্ট  : একুশে আগস্ট বোমা হামলা মামলা নিয়ে আওয়ামী লীগ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত রাজনীতি করছে বলে ...

Scroll Up