ভাপা পিঠা তৈরির সহজ ও পারফেক্ট রেসিপি

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : শীতকালে অন্যান্য খাবারের চেয়ে পিঠা খাওয়ার ধুম পড়ে যায় চারদিকে। নবান্নের আমেজও থাকে। আর এই ধুমটা যদি হয় ভাপা পিঠা খাওয়ার তাহলে তো কোন কথাই নেই।

ভাপা পিঠার নাম শুনলেই মিষ্টি গুড় আর নারকেলের লোভনীয় ঘ্রাণ নাকে চলে আসে? মজার ব্যাপার হলো ভাপা পিঠা শুধু মিষ্টি স্বাদেরই নয়, তৈরি করা যায় ঝাল স্বাদেরও। এটি আবার নানান আকারের তৈরি করা হয়ে থাকে। আপনি আপনার বাসায় থাকা হাড়ি এবং ঢাকনার আকার অনুযায়ী তৈরি করতে পারেন ভাপা পিঠা। বাঙালির এই ঐতিহ্যবাহী ভাপা পিঠার রেসিপিটি দিয়েছেন রন্ধনশিল্পী মোসাম্মৎ সেলিনা হোসেন

প্রয়োজনীয় উপকরণ : চালের গুঁড়া-১ কেজি, নারিকেল-১টা (কোরানো), গুঁড় কুচানো- পরিমান মতো, পানি- পরিমান মতো।

অন্যান্য উপকরণ : ২ টুকরা সাদা পাতলা নরম কাপড়ের টুকরা, ছোট্ট ঢাকনা, পিঠা বানানোর জন্য ছোট এবং গোল বাটি, পিঠা ভাপানোর জন্য ঢাকনাসহ বিশেষ পাত্র অথবা ভাপা পিঠার মাটির হাড়ি, বাঁশের চালনি।

প্রস্তুত প্রণালী :

চালের গুড়ার খামির তৈরি :

১। একটি পাত্রে চালের গুড়া, লবন ও অল্প অল্প পানি দিয়ে ঝরঝরে করে ভাল ভাবে মাখাতে হবে যাতে দলা পাকিয়ে না যায়, খেয়াল রাখবেন খামিরটা অবশ্যই ঝরঝরে হতে হবে।

২। এবার এই চালের গুঁড়া বাশের চালানিতে হাত দিয়ে ঘষে ঘষে চালতে হবে। ঝরঝরে মোটা সুজির দানার মত বের হেব।

৩। কোরানো নারিকেলের অর্ধেকটা চেলে নেয়া চালের গুঁড়ার সাথে মাখাতে হবে এবং বাকি অর্ধেকটা কুচানো গুঁড়ের সাথে মেখে রাখতে হবে।

পিঠা ভাপানো :

৪। এবার হাড়ির অর্ধেকটা পানিতে ভরে জ্বাল দিয়ে পানি ফুঁটিয়ে ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ভাপা পিঠার জন্য বাজারে বিশেষ এক ধরণের হাড়ি পাওয়া যায়, সেটিও ব্যবহার করতে পারেন। এই হাড়িটির ঢাকনার ঠিক মাঝখানে একটা ফুটো থাকে, হাড়ি কিনারায় বাতাস চলাচল আটকে দেয়া হয় তাই ভাপটা শুধু এই ফুটো দিয়েই বের হয়।

৫। এখন পিঠার জন্য ছোট বাটিতে (মাটির বা স্টিলের বাটি) এক ফোটা তেল মেখে কিছু মাখানো চালের গুঁড়া দিয়ে তার উপর গুঁড় ছড়িয়ে দিতে হবে এবং এর উপর আবার চালের গুঁড়া দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। আলতো হাতে চেপে চেপে সমান (লেভেল করা) করে ভাপা পিঠার আকার তৈরি করে নিতে হবে। বেশি পাতলা বা বেশি মোটা স্তর যেন না হয়, সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

৬। এবার বাটিটা ভেজা পাতলা কাপড় দিয়ে ঢেকে গরম পানির হাড়ির উপর উপুড় করে বসিয়ে দিতে হবে। এবার বাটিটা আস্তে করে সরিয়ে নিতে হবে, খেয়াল করতে হবে যেন পিঠা ভেঙ্গে না যায়।

৭। কাপড়ের প্রান্তগুলি মুড়ে এক জায়গায় করে বড় ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে, যাতে ভাপটা পিঠার গায়ে লাগে। ৫/৭ মিনিট ভাপে সেদ্ধ হলে ঢাকনা সরিয়ে আঙ্গুল দিয়ে চেপে দেখতে হবে নরম হয়েছে কি না। নরম হলে বুঝতে হবে পিঠা পরিবেশনের জন্য রেডি।

এরপর পাতিলের উপর থেকে নামিয়ে নিয়ে গরম গরম ভাপা পিঠা পরিবেশন করুন।

x

Check Also

আবারও আটকে গেল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কার্যক্রম

এমএনএ রিপোর্ট : বাংলাদেশের পক্ষে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার পরও রোহিঙ্গারা যেতে রাজি ...

Scroll Up