ভারতে প্রতি ২ জনে ১ জন ঘুষ দেন!

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভারতে প্রতি ২ জনের মধ্যে ১ জন নাগরিক সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ দেন বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল ইন্ডিয়া। সম্প্রতি ২০১৯ সালে ভারতে দুর্নীতির সর্বশেষ অবস্থা জানতে একটি জরিপ চালিয়েছে সংস্থাটি। সেখানেই ভারতের সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ-দুর্নীতির এই ভয়াবহ চিত্র উঠে এসেছে।

ভারতের ২০টি রাজ্যের ১ লাখ ৯০ হাজার মানুষের মধ্যে জরিপটি চালানো হয়। জরিপে অংশগ্রহণকারী অধিকাংশ মানুষ তাদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার আলোকে জানিয়েছেন, তাদের কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সরকারি কর্মকর্তাদেরকে ঘুষ দিতে হয়েছে এবং এই দুর্নীতি দমনে সরকার পর্যাপ্ত পদক্ষেপ নেয়নি।

জরিপে অংশগ্রহণকারীর মধ্যে ৫১ শতাংশ মানুষ ২০১৯ সালে কমপক্ষে একবার সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়েছেন। ৬৪ শতাংশ মানুষ তাদের কাজ যথাসময়ে সম্পাদন করতে ঘুষ দিতে বাধ্য হয়েছেন। ৮২ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন, দুর্নীতি দমনে সরকার কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি কিংবা যেসকল পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা ছিল অকার্যকর।

 

জরিপে সবচেয়ে বেশি ঘুষ দিতে হয় এমন খাতগুলোর তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এই তালিকার সর্ব প্রথমে রয়েছে সম্পত্তি রেজিস্ট্রেশন অফিস। এছাড়াও রয়েছে পুলিশ স্টেশন, পৌরসভা অফিস, পরিবহন অফিস, কর অফিস এবং বিদ্যুৎ বোর্ড।

রাজস্থানে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ ঘুষ দিতে বাধ্য হয়েছেন। সেখানকার প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৭ জনই ঘুষ দিয়েছেন। অন্যদিকে কেরালায় প্রতি ১০ জনে ১ জন মানুষ সরকারি কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়েছেন।

ভারতে প্রতি বছরই ঘুষ-দুর্নীতি নিয়ে জরিপ পরিচালনা করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল ইন্ডিয়া। চলতি বছরের রিপোর্টে দেখা গেছে, গত বছরের তুলনায় এবার ঘুষ-দুর্নীতি অবস্থার উন্নতি হয়েছে। ২০১৮ সালে ভারতের ৫৬ শতাংশ মানুষ তাদের কাজ সম্পাদনে সরকারি কর্মকর্তাদেরকে ঘুষ দিয়েছিলেন।

x

Check Also

বরেণ্য অধ্যাপক অজয় রায়ের জীবনাবসান

এমএনএ রিপোর্ট : একুশে পদকপ্রাপ্ত পদার্থ বিজ্ঞানের বরেণ্য অধ্যাপক অজয় রায় (৮৫) রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ...

Scroll Up