রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতার ভিডিও চিহ্নিত করবে ইউটিউব

36
এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় সম্প্রচারিত ভিডিওগুলোকে চিহ্নিত করে দেওয়া শুরু করেছ মার্কিন ওয়েব জায়ান্ট গুগল অধীনস্থ বিনামূল্যের ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউব।
এই পরিবর্তন একাধিক উৎসের উপর প্রভাব ফেলবে। ভুল তথ্য ছড়ানো বন্ধের উদ্দেশ্যেই এটি আনা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রযুক্তি সাইট ভার্জ-এর প্রতিবেদনে। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় সম্প্রচার করা ভিডিওগুলোর চিহ্নে প্রকাশকদের বিষয়ে উইকিপিডিয়া ভুক্তির লিঙ্ক জুড়ে দেওয়া হচ্ছে।
“বর্তমানে আমরা শুধু মার্কিন দর্শকদের জন্য এই ফিচার এনেছি, আর এটি একদম যথাযথ হবে এমনটাও আশা করছি না”- এক ব্লগ পোস্টে ইউটিউব-এর পক্ষ থেকে এ কথা বলা হয়েছে।
এই পরিবর্তন বিশেষভাবে রুশ রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আরটি’র উপর প্রভাব ফেলবে- বলা হয়েছে ভার্জ-এর প্রতিবেদনে।আরটির জন্য সবচেয়ে বড় প্লাটফর্মগুলোর মধ্যে একটিতে পরিণত হয়েছে ইউটিউব। আরটি’র ভিডিওগুলো রাষ্ট্রীয় বলে চিহ্নিত করা হচ্ছে। ইউটিউব বলেছে, “আরটি পুরোপুরি বা আংশিকভাবে রুশ সরকারের তহবিলে চলে।”
আরটি-এর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, এটি হচ্ছে ইউটিউব-এর সবচেয়ে বেশি দেখা সংবাদ চ্যানেল। আরটি আমেরিকা আর আরটি স্পোর্টসহ ২০টি বা তারও বেশি চ্যানেল নিয়ে আরটি-এর মোট দর্শক সংখ্যা পাঁচশ’ কোটিরও বেশি। আরটিকে ইংরেজি ভাষায় ‘রাশিয়ার প্রজ্ঞাপন’ প্রচারকারী হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল বদলাতে এই নেটওয়ার্ক সহায়তা করেছিল বলে বারবার দাবি করে আসছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।
ইউটিউব-এর প্রধান পণ্য কর্মকর্তা নিল মোহান ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল-কে বলেন, এই প্ল্যাটফর্ম এখন থেকে ‘ষড়যন্ত্র তত্ত্বের’ ভিডিওগুলোর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ভিডিও দেখানো শুরু করতে পারে।