রোজার সময়ে ত্বকের বিশেষ যত্ন

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : এখন ত্বকের সৌন্দর্য হারালে ঈদের সময় নিজেকে সুন্দর করে তুলতে বেশ বেগ পেতে হবে। সারাদিন রোজা রাখার কারণে ত্বক মলীন আর নিষ্প্রাণ হয়ে যায়। সারাদিন পানি না খাওয়ার কারণে ত্বকে আর্দ্রতার পরিমাণও কমে।

তাই এই সময় ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য ধরে রাখতে ত্বকের বিশেষ যত্ন নেওয়া জরুরি। রোজা রেখেও ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখার কিছু পন্থা জানিয়েছেন রূপবিশেষজ্ঞ মোসাম্মৎ সেলিনা হোসেন

তিনি বলেন, পানি শূণ্যতার কারণে রোজায় ত্বক শুষ্ক আর প্রাণহীন হয়ে যায়। তাই এ সময় পর্যাপ্ত ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করা উচিত।

তিনি আরও বলেন, তাছাড়া যাদের ত্বক স্বাভাবিক বা তৈলাক্ত তারা অ্যালোভেরা জেল সমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলে উপকার পাবেন। আর যাদের ত্বক বেশি শুষ্ক তারা ভিটামিন ই সমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারেন। পানি শূণ্যতার কারণে এসময় ত্বকে ব্রণের সমস্যা বেড়ে যেতে পারে।

ব্রণ থেকে মুক্তি পেতে ঘরেই নিম পাতা দিয়ে একটি প্যাক তৈরি করার কৌশল জানান সেলিনা হোসেন। পাঁচটি নিমপাতা বেটে এর সঙ্গে এক চামচ মুলতানি মাটি, এক চামচ মধু, এক চামচ লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট করে সারাদিনে যে কোনো সময় একবার পুরো মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করলে ব্রণ এবং ব্রণের দাগও চলে যাবে।

মুলতানি মাটি, মধু আর দই দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করে ব্যবহার করার পরামর্শ দেন সেলিনা হোসেন

সেলিনা হোসেন বলেন, সারাদিন রোজা রেখে আর ব্যস্ততার ফাঁকে নিজের জন্য কিছুটা সময় আলাদা করে নিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়া গেলেই সুন্দর ও মশ্রিণ ত্বকের অধিকারী হওয়া যায়।

রোজায় ঠোঁটের ত্বকও শুষ্ক হয়। অনেক সময় ফেটেও যায়। তাই রাতে ঘুমানোর আগে ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি বা লিপ বাম লাগিয়ে ঘুমাতে হবে। ঠোঁট বেশি শুষ্ক হয়ে গেলে কুসুম গরম নারিকেল তেল মালিশ করার পরামর্শ দেন তিনি।

ঠোঁটের জন্য একটি প্যাক তৈরির পদ্ধতি জানান সেলিনা হোসেন। কাঠবাদামের বাটার বা তেলের সঙ্গে ঠাণ্ডা দুধ মিশিয়ে তৈরি প্যাক ঠোঁটে ব্যবহার ছাড়াও পুরো মুখের ত্বকে ব্যবহারের জন আদর্শ। এটি শুষ্ক ও পানিশূণ্য ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

তবে শুধু মুখের ত্বকের যত্ন নিলে চলবে না, যত্ন নিতে হবে শরীরের ত্বকেরও। রোজার সময় কড়া গন্ধযুক্ত সুগন্ধি এড়িয়ে হালকা ও মিষ্টি সুবাস বেছে নেওয়ার পরামর্শ দেন এই রূপবিশেষজ্ঞ। এছাড়া ইফতারে ভাজাপোড়া খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করারও পরামর্শ দেন তিনি।

তার কথায়, ইফতার থেকে সেহেরি পর্যন্ত প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। যতটুকু সম্ভব ভাজাপোড়া আর তেলজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। প্রচুর ফল, শাকসবজি খেতে হবে। প্রচুর পানি পান করতে হবে। সুন্দর ত্বকের জন্য স্বাস্থ্যকর খাবারের কোনো বিকল্প নেই।

x

Check Also

ত্বকের যত্নে নারকেল তেলের ভিন্ন ব্যবহার

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : শুধু চুলের পরিচর্যার জন্যই নয়, ত্বকের যত্নেও সমান কার্যকর নারকেল তেল। ...

Scroll Up