সম্প্রসারিত হলো মন্ত্রিসভা, শপথ শনিবার

এমএনএ রিপোর্ট : একজন প্রতিমন্ত্রী থেকে পদোন্নতি পেয়ে পূর্ণমন্ত্রী, সেই সঙ্গে নতুন একজন প্রতিমন্ত্রী যুক্ত করার মাধ্যমে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রিসভা সম্প্রসারিত হলো। আগামী শনিবার (১৩ জুলাই) শপথ অনুষ্ঠিত হবে। এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সচিবালয়ে ডিসি সম্মেলন নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের জবাব দেন শফিউল আলম।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ পদোন্নতি পেয়ে পূর্ণ মন্ত্রী হচ্ছেন আর নতুন প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা। তাকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। কারণ এ মন্ত্রণালয়ে কোনো মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী নেই। আগামী শনিবার তারা শপথ নেবেন।

মন্ত্রিসভা সম্প্রসারিত হচ্ছে বলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তুতি রয়েছে কি না -জানতে চাইলে শফিউল আলম বলেন, ‘আমরা প্রস্তুত। শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গভবনে মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হবে।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর সরকার গঠনের ছয় মাসের মাথায় সম্প্রসারিত হচ্ছে মন্ত্রিসভা। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর গত ৭ জানুয়ারি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ।

প্রধানমন্ত্রীসহ ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী নিয়ে নতুন মন্ত্রিসভা যাত্রা শুরু করে। পরবর্তী সময়ে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের দপ্তর পরিবর্তন হয়। তিনি তথ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান।

পরে গত ১৯ মে মন্ত্রিসভা পুনর্বিন্যাস করা হয়। তখন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী করা হয়। এছাড়া ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে একই মন্ত্রণালয়ের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রী করা হয়। এ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের দায়িত্ব দেওয়া হয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে।

একই সঙ্গে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীন স্থানীয় সরকার বিভাগের মন্ত্রী করা হয় তাজুল ইসলামকে। তাকে আগে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও স্বপন ভট্টচার্যকে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। একই মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন স্বপন ভট্টাচার্য।

x

Check Also

আবারও আটকে গেল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কার্যক্রম

এমএনএ রিপোর্ট : বাংলাদেশের পক্ষে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার পরও রোহিঙ্গারা যেতে রাজি ...

Scroll Up