সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেবে বিএনপি : ফখরুল

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু করতে বিএনপি যথাসময়ে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা ঘোষণা করবে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা দেব। আমরা মনে করি যে, প্রত্যেকটি বিষয়ের একটি সময় আছে। সেই সঠিক সময়েই অর্থাৎ যথাসময়ে অবশ্যই নির্বাচকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা জাতির কাছে ‍তুলে ধরা হবে’।
আগামী নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বক্তব্যের জবাবে তিনি এ কথা জানিয়ে বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্যই বিএনপি সহায়ক সরকারের কথা বলে আসছে। উপযুক্ত এবং যথাসময়ে এই সরকারের রূপরেখা জাতির সামনে তুলে ধরা হবে।
আজ শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের চিকিৎসক সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিযেশন অব বাংলাদেশ-ড্যাবের দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন শেষে তিনি এ কথা বলেন।
বিএনপির সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ এ মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়।
ফখরুল বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছি- নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ সরকার চাই। আমরা আওয়ামী লীগের সরকার চাই না, শেখ হাসিনার সরকার চাই না’।
‘আমাদের দীর্ঘ পথের অভিজ্ঞতা- তাদের অধীনে কোনোদিন নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না। কারণ সব কিছুই গায়ের জোরে নিয়ে যেতে চান তারা’।
তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ সরকার না হলে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। সে কথা সরকার শুনছেও না, সে কথায় তারা যেতেও চান না। তারা জানেন যে, নির্বাচন যদি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হয়, সুষ্ঠু অবাধ হয়, সব মানুষ যদি ভোট দিতে পারে তা হলে আওয়ামী লীগের ভরাডুবি হবে। তারা কখনও ক্ষমতায় আসতে পারবে না’।
মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপির নির্বাচনের যে অবস্থান সেটা অত্যন্ত পরিষ্কার। একটা সমান্তরাল ক্ষেত্র চাই, নিরপেক্ষ সরকার চাই। যেখানে সকলে অংশ নিতে একটা উপযুক্ত পরিবেশ পায়।
বিএনপি মহাসচিব হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত ঘটনা দেশে আর ঘটতে দেওয়া হবে না। যেকোনো মূল্যে গায়ের জোরে ক্ষমতায় টিকে থাকার নির্বাচন প্রতিহত করা হবে।
এদিকে এক বিবৃতিতে চাঁদপুর জেলাধীন মতলব (উত্তর) থানার অন্তর্গত ছেঙ্গারচর পৌর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজীব আহমেদকে গ্রেপ্তার ও মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, বিরোধী দলের নেতাকর্মীদেরকে অব্যাহত গতিতে গ্রেপ্তার ও হীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দিয়ে কারাগারে নিক্ষেপের মাধ্যমে গোটা দেশকেই কারাগারে রুপান্তরিত করেছে সরকার। বর্তমান সময়ে এই গ্রেপ্তারের ঘটনা ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। এ ধরনের অপকর্ম সরকারের চলমান প্রক্রিয়ায় পরিণত হয়েছে।
আরেক বিবৃতিতে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী রাজীব আহমেদকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
অনুষ্ঠানে ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. সিরাজউদ্দিন আহমদ, আতাউর রহমান ঢালী, অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম, ডা. মোফাখখারুল ইসলাম. ডা. আহমেদ মঞ্জুরুল, ডা. মিজানুর রহমান মিয়া. ডা. সামিউল হাসান, ডা. মো. সাইফুল ইসলাম. ডা. গাজী শাহিনুর ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
x

Check Also

এরশাদের আসনে জাপার প্রার্থী ছেলে সাদ এরশাদ

এমএনএ রিপোর্ট : প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এইচ এম এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনে জাতীয় পার্টির ...

Scroll Up