সোনামনির ঈদের সাজ

55

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : বিশ্ব জাহানে ঈদ আসে খুশির বার্তা নিয়ে। ঈদের আনন্দ ব্যক্তি ভেদে ভিন্ন হলেও ছোটদের জন্য তা অতি উৎসাহের।  খুশির দিনটিতে আপনার সোনামনির সাজ কেমন হবে তা জেনে নিতে পারেন  এ বিশেষ প্রতিবেদনে।

ঈদকে সামনে রেখে ছোটদের বায়নার কমতি থাকে না। মা-বাবাকে অতিষ্ট করে দেয় নতুন জামা, জুতা, চুলের ক্লিপ, রাবার ব্যান্ড, চুড়ি আংটিসহ সাজসজ্জার নানা অনুষঙ্গের জন্য। তাই রমজানের শুরু থেকে অভিভাবকরা সন্তানের পছন্দসই পণ্যটি কিনতে ছুটে যান মার্কেটে।

ঈদের দিন কে কেমন করে সাজবে তা নিয়ে ভাইবোনদের মধ্যে চলে প্রতিযোগিতা। তবে পোশাক থেকে শুরু করে সবকিছুই হওয়া চাই তাদের উপযোগী। সাজগোজ করে সারাদিন ঘুরে বেড়ানো আর লাফালাফি করা তাদের স্বভাব। এসবে যেন তাদের কোনো অস্বস্তি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

ছেলেদের বেলায় পোশাক, জুতা আর কিছু এক্সেসরিজ দিলে সাজ সম্পূর্ণ হয়। কিন্তু মেয়েদের চায় পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে জুতা, স্যান্ডেল এমনকি চুলের ক্লিপও পর্যন্ত ম্যাচিং। তাই ওদের পছন্দমতো পোশাকটি কিনে দেয়া ভালো। এক্ষেত্রে সুতি বা লিলেন কাপড়ের পোশাক হলে বেশি ভালো হয়। এতে বাচ্চারা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবে। পোশাকটি আরামদায়কও হবে।

সোনামনিছোট্ট সোনামনি সাজের জন্য খুবই আগ্রহী থাকে কিন্তু সৌন্দর্যবোধ খুব বেশি স্পষ্ট থাকার কথা নয়। তাই ঈদের দিনে তাকে দিন আরামদায়ক সাজগোজ। যাদের চুল ছোট সেসব বাচ্চাদের ঝুটি করে বা ক্লিপ দিয়ে চুল বেঁধে দিতে পারেন। চুল বাঁধার উপযোগী না হলে বাজারে নানা ধরনের ব্যান্ড পাওয়া যায়, জামার সঙ্গে মিলিয়ে একটি পরিয়ে দিন। অপরূপ দেখাবে ওকে।

উজ্জ্বল রঙ বাচ্চাদের পছন্দ, তবে হালকা রঙের পোশাকে বাচ্চাদের অসাধারণ লাগে। বাচ্চাদের চেহারার সঙ্গে পবিত্রতা যোগ হয় এ ধরণের পোশাকে। তাই নেইল পলিশ হতে পারে পোশাকের সঙ্গে রঙ মিলিয়ে।

চোখে কাজল বা আই শ্যাডো না দেয়াই ভালো। কেননা এতে ওদের শিশুসুলভ সৌন্দর্য ফুটে ওঠে না। বেশি বায়নার কারণে যদি এসব দিতেও হয়, তাতে সাবধানতা অবলম্বন করা উচিৎ। চোখের পাতায় হালকা রঙের শ্যাডো লাগিয়ে দিন।

গলার মালা, হাতের চুড়ি, কপালে পছন্দের টিপ আপনার বাচ্চাকে করে তুলতে পারে অপ্সরী। আর সেজন্য রুচিশীল সাজটা আপনাকেই বেছে দিতে হবে।

সারাদিন একই সাজে থাকলে শিশুর ত্বকে ক্ষতি হতে পারে। ঘণ্টা তিনেক পর পর ওদের মুখ ভালো করে ধুইয়ে আবার সাজিয়ে দিন। এতে ওদেরও ভালো লাগবে, আর ত্বকও সুস্থ থাকবে। সঙ্গে পোশাকটিও পরিবর্তন করে দিতে পারেন। হালকা গন্ধের পারফিউম ছড়াবে সৌখিন আবেশ।