৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস আজ

এমএনএ রিপোর্ট : আজ ৪ নভেম্বর। জাতীয় সমবায় দিবস। ‘উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এবার দেশে দিবসটি উদযাপিত হবে।
এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।
স্বাধীনতা-পরবর্তী এ দেশে সমবায় আন্দোলনকে জোরদার করতে বিভিন্ন সময়ে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সমবায় আইন প্রণয়ন, সংশোধন ও বিধিমালা জারি, প্রশিক্ষণ একাডেমি প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে জনগণের আর্থসামাজিক উন্নয়নে সমবায়ভিত্তিক কাজ করে যাচ্ছে সরকার। এরপরও নানা প্রতিবন্ধকতার মুখে দেশের সমবায় কার্যক্রম এগোচ্ছে ঢিমেতালে।
জানা গেছে, সমবায় সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করা এবং সমবায় আন্দোলনে গতি আনতে স্বাধীনতার পর থেকে প্রতিবছর নভেম্বর মাসের প্রথম শনিবার সরকারিভাবে পালন করা হয় জাতীয় সমবায় দিবস। সে হিসেবে আজ ৪৬তম সমবায় দিবস পালিত হচ্ছে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য—উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি।
সমবায় মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য মতে, বিগত বছরগুলোতে সমবায়ের মাধ্যমে দুগ্ধ উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে সরকার। আরও দুটি দুগ্ধভিত্তিক প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ চলমান রয়েছে। পাশাপাশি কৃষি ও অকৃষি পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার।
জাতীয় সমবায় দিবস উদ্‌যাপন উপলক্ষে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে- র‌্যালি ও আলোচনাসভা।
র‌্যালিটি আজ শনিবার (০৪ নভেম্বর) সকাল ৮টায় রাজধানীর মৎস্যভবন মোড় থেকে শুরু হয়ে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এসে শেষ হবে। সকাল ৯টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘উৎপাদনমুখী সমবায় করি, উন্নত বাংলাদেশ গড়ি’ শীর্ষক আলোচনাসভা। একই স্থানে সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় সমবায় পুরস্কার-২০১৫ বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে।
জানা গেছে, দেশে এই মুহূর্তে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৭৭০টি নিবন্ধিত সমবায় প্রতিষ্ঠানে প্রায় ১ কোটি ৬ লাখ ৯০ হাজার ৭২৮ জন সদস্য রয়েছে। সমবায় সমিতিগুলোর কার্যকরী মূলধন প্রায় ১৪ হাজার ৫৪ কোটি টাকা এবং মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৭ হাজার ৩২ কোটি টাকা। এ সকল সমবায়ের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ৮ লাখ ২৬ হাজার ৭৩৮ জন লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে।
এছাড়াও সমবায়ভিত্তিক ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এখন থেকে আর মাইক্রোক্রেডিট নয়, ‘মাইক্রো সেভিংস’র ব্যবস্থা করা হয়েছে। গড়ে তোলা হয়েছে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক।
x

Check Also

রক্তাক্ত ভয়াল-বিভীষিকাময় ২১শে আগস্ট আজ

এমএনএ রিপোর্ট : রক্তাক্ত ভয়াল-বিভীষিকাময় ২১শে আগস্ট আজ। রাজনৈতিক ইতিহাসে ২১ আগস্ট একটি কলঙ্কময় দিন। মৃত্যু-ধ্বংস-রক্তস্রোতের ...

Scroll Up