প্রকৃতির সৌন্দর্য যেখানে কেড়ে নেয় মানুষের জীবন!

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : প্রকৃতিকে ভালোবেসে তার সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়ে প্রকৃতির কাছে ছুটে যাই আমরা। কিন্তু কখনো কি শুনেছেন প্রকৃতির সৌন্দর্য যেখানে কেড়ে নেয় মানুষের জীবন! অবিশ্বাস্য মনে হলেও এমনটিই ঘটে চলেছে দীর্ঘ বছর থেকে।

দুনিয়াতে এমন ভয়ঙ্কর কিছু থাকলেও থাকতে পারে। তবুও মানুষ প্রকৃতির কাছে ছুটে যাবে। কারণ প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য- চোখ ধাঁধানো এই বিস্ময় জানে একজন মানুষকে কত দূর নিয়ে যেতে পারে! কত গহীন বন, কত সমুদ্রের তল, কত দুর্গম পাহাড়ের চূড়া মানুষ চোষে বেড়াচ্ছে শুধুই সৌন্দর্যের নেশায়। আর সেই সৌন্দর্যই যদি হয় মৃত্যু ফাঁদ?

কোন গহীন বন নয়, নয় কোনও নির্জন দ্বীপ বা শুনশান মরুভূমি। মানুষের তৈরি পিচ ঢালা চমৎকার একটি সড়ক। সমতলে সহজ সোজা একটি পথ। কোন ঢাল নেই, বাঁক নেই। দেখলে কখনোই মনে হবে না এই সড়ক প্রতি বছর অসংখ্য মানুষের প্রাণ নিয়ে নিচ্ছে! কীভাবে? সড়কের দুইপাশের অবারিত সৌন্দর্য গাড়ির চালককে এতই মোহিত করে যে দুর্ঘটনায় নিহত হয় সে। কখনো অন্য গাড়ির সাথে, কখনো পাশের খাঁদে প্রাণ হারায় সে!

বিশ্বাস হচ্ছে না? অস্ট্রেলিয়ার দীর্ঘতম সমতল সড়ক এটি। নাম আয়ার হাইওয়ে। দৈর্ঘ্য ১,৬৭৫ কিলোমিটার। পশ্চিম অস্ট্রেলিয়াকে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার সাথে সংযুক্ত করেছে এই সড়কটি। সড়কের শুরু হয়েছে নরস্ম্যান থেকে এবং শেষ হয়েছে পোর্ট অগাস্টায়। এটি বিশ্বের দশম স্ট্রেইট দীর্ঘতম সড়ক।

এই সড়কে অস্বাভাবিক প্রাণহাণির কারণ খতিয়ে যা পাওয়া গেছে তা আদতেই অদ্ভুত। দীর্ঘ একঘেয়ে এই সড়ক আপনাকে একলা করে দেবে। একই রকম দৃশ্য এত লম্বা সময় দেখতে দেখতে আপনি অবস্বাদগ্রস্ত হয়ে পড়বেন। হতাশা গ্রাস করবে আপনাকে আর তখনই ঘটবে অঘটন।

কোনও টার্নিং পয়েন্ট বা ন্যূনতম বৈচিত্রহীন এই সড়ক হতাশা এবং বিপদের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই ভ্রমণের নেশায় আপনি যদি পাড়ি জমান এই পথে তবে অবশ্যই সাথে একজন সঙ্গী নিন, নিজেই বৈচিত্রময়তার আয়োজন করে নিন। গান শুনুন, সঙ্গীর সাথে কথা বলুন এবং যত দ্রুত সম্ভব পথটি শেষ করুন!

x

Check Also

ছবিটির জন্য আলোকচিত্রী পুরস্কার পেলেন ১ কোটি টাকা

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : একটি অসহায় মা, দু’টি বাচ্চা নিয়ে মাটিতে বসে ‘কাঁদছেন’। একটি বাচ্চা ...

Scroll Up