বয়সের ছাপ দূর করার কয়েকটি অভিনব কৌশল

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : মেকআপ ও যত্নের মাধ্যমে ঢেকে ফেলা যায় বয়সের ছাপ। তবে জানতে হবে কিছু কৌশল। ভারী ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করা, চোখের পাতা আর্দ্র রাখাসহ বিভিন্ন কৌশলে মেকআপ করলে বয়সের ছাপ ঢেকে রাখা সম্ভব। আর এরকম আরও পন্থা জানিয়েছে রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইট।

ভারী ফাউন্ডেশন এড়িয়ে চলা : ভারী ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে ত্বকের সূক্ষ্ম রেখা বরাবর ফাটা দাগের সৃষ্টি হয়। তাই মেকআপ শুরু করার আগে প্রথমে ময়েশ্চারাইজার, প্রাইমার এবং তার পরে হালকা বিবি ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

চেহারায় তারুণ্যের উজ্জ্বলতা প্রকাশ করতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের পরে ‘স্কিন প্লাম্পিং সিরাম’ ব্যবহার করা যেতে পারে।

চোখের পাতা আর্দ্র রাখা : মুখের পাশাপাশি চোখের পাতাও আর্দ্র রাখা প্রয়োজন। চোখের পাতা শুষ্ক থাকলে তাতে আই শ্যাডো ব্যবহার করলে ভাঁজের সৃষ্টি হয়। এবং বয়সের ছাপ অনেক বেশি বোঝা যায়। চোখে মেকআপ করার আগে প্রাইমার ব্যবহার করা হলে বয়সের ছাপ কম প্রকাশ পায়।

ভ্রু’র আকার ঠিক রাখা : সুন্দর গোছানো ভ্রু এক মুহূর্তেই চেহারায় তারুণ্য ফুটিয়ে তুলতে পারে। তাই নিজের মুখমণ্ডলের সঙ্গে মানানসই ভ্রু’র আকার নির্ধারণ করুন এবং ভ্রু যদি খুব বেশি চিকন হয়ে যায় তাহলে ‘আই ভ্রু পেন্সিল’য়ের সাহায্যে মাপ ঠিক করে নিন।

ঠোঁট এক্সফলিয়েট করুন ও ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার : আর্দ্র ও কোমল ঠোঁট কেবল তারুণ্য প্রকাশ করে না পাশাপাশি সুন্দরভাবে লিপস্টিক দিতেও সাহায্য করে। প্রতি দুই সপ্তাহে একবার ঠোঁট এক্সফলিয়েট করুন। এতে ঠোঁট আর্দ্র থাকবে এবং লিপস্টিকও সুন্দরভাবে বসবে।

চোখের ক্লান্তিভাব দূর করতে : চোখের ক্লান্তিভাব খুব সহজেই চেহারায় বয়সের ছাপ ফেলে। এটা দূর করতে পর্যাপ্ত ঘুম ও আর্দ্র থাকা প্রয়োজন। শসা অথবা আলুর টুকরা চোখের উপরে লাগাতে পারেন। এতে চোখের ফোলাভাব কমবে ও চোখ উজ্জ্বল লাগবে।

চোখের নিচের কালো দাগ : বয়সের আগেই বুড়ি দেখানোর জন্য চোখের নিচের কালো দাগই যথেষ্ট। পর্যাপ্ত ঘুমের পাশাপাশি উন্নত মানের ‘আন্ডার আই ক্রিম’ অথবা প্রাকৃতিক তেল যেমন- কাঠ বাদামের তেল ব্যবহার করুন। এতে চোখের নিচের কালোভাব দূর হবে।

চুলের ঘনত্ব ফিরিয়ে আনতে : বয়সের সঙ্গে সঙ্গে চুল পড়া সমস্যা দেখা দেয়। চুলের ঘনত্ব বাড়াতে রোলার ব্যবহার করতে পারেন। অথবা মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে আঁচড়ালে চুল ফুলে থাকবে তখন দেখতে বেশি লাগবে।

হাত ও পায়ের আর্দ্রতা : হাত ও পায়ের বলিরেখা থেকে বয়সের ছাপ বোঝা যায়। প্রতিদিন হাত ও পায়ে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন এবং অতিরিক্ত পানি ও ডিটারজেন্টের ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। এতে ত্বক সহজেই শুষ্ক হয়ে যায়।

নখের যত্ন : বয়সের সঙ্গে নখ ভঙ্গুর ও বিবর্ণ হয়ে যায়। নখের যত্নে নিয়মিত ম্যানিকিউর ও পেডিকিউর করুন।

x

Check Also

সোনামনির ঈদের সাজ

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : বিশ্ব জাহানে ঈদ আসে খুশির বার্তা নিয়ে। ঈদের আনন্দ ব্যক্তি ভেদে ...

Scroll Up