সোনামনির জন্য চাই শীতের সেরা পোশাকটি

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : কদিন আগের প্রচন্ড গরম আর এখন নেই। হালকা শীতের হিমেল পরশ দূয়ারে কড়া নাড়ছে। শীতের সময় সবচেয়ে বেশি চিন্তা সোনামনিদের নিয়ে। এই শীতে সোনামনির জন্য চাই বাড়তি যত্ন। কারণ শীতে ঋতু পরিবর্তনের ফলে শিশু নানা রকম অসুখে আক্রান্ত হয়। এজন্য শীতে শিশুদের সব সময় শীতের পোশাক পরিয়ে রাখতে হবে। তবে শিশুকে শীতের যে পোশাক পরাবেন তা হওয়া চাই আকর্ষণীয় ও ফ্যাশনেবলও। এ বিশেষ  প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন- মোসাম্মৎ সেলিনা হোসেন

সারাদেশসহ রাজধানীতে হালকা শীতের আমেজ অনুভব করা যাচ্ছে। তবে জাঁকিয়ে বসা শীত যাকে বলে সেটা আসতে আরও কিছুটা দেরী। সকালে যখন কাজে বের হবেন কিংবা রাতে যখন বাড়ি ফিরবেন, তখন নিশ্চয়ই একটা ঠাণ্ডা হাওয়া ছুঁয়ে যাবে শরীরে? চমৎকার এক মৌসুম। এমন সময়ে না ভারি শীতের পোশাক পরা যায়, না বেছে নেয়া যায় সাধারণ পোশাক। তবে এ হালকা শীতটা কিন্তু ফ্যাশনের জন্য দারুণ।

তাই বিভিন্ন হাউসগুলোতে ধুম পড়েছে বাচ্চাদের শীতের পোশাকের। এই শীতে আপনার শিশুর জন্য কোন ধরনের শীত পোশাক বেছে নিবেন জেনে নিন –

সোয়েটার

এই শীতে শিশুর জন্য সোয়েটার না জ্যাকেট বেছে নেবেন তা নিয়ে এ দ্বিধায় ফেলে দেবে নজরকাড়া নকশা। আপনাকে নতুন নানা ডিজাইনে মেয়েদের ফ্রক সোয়েটার, শর্ট সোয়েটার এসেছে। জিন্সের কাপড়েও পাওয়া যাচ্ছে ফ্রক সোয়েটার। ডেনিমের প্যান্ট আর উলের সোয়েটারও বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। চাইলে চামড়ার জ্যাকেটও কিনতে পারেন। আপনি আপনার সোনামণির জন্য পছন্দ অনুযায়ী ফ্যাশনেবল ও আকর্ষণীয় কালেকশনটি খুঁজে নিন।

কিডস উইন্টার স্যুট

শিশুদের শীতের পোশাকে নতুন মাত্রা যোগ করেছে উইন্টার স্যুট। শিশুদের শীতের পোশাকের কাপড় সুতি হলে পরতে আরামদায়ক হয়। তাছাড়াও উল ও কটনের তৈরী স্যুট ও বেশ আরাম দাময়ক। শিশুদের স্যুট গুলো দেখতে খুব চমৎকার। রয়েছে আকর্ষণীও ডিজাইনের বাহার। ৬ মাসে থেকে ২ বছর বয়সী শিশুদের এই ড্রেসে বেশ মানায়।

শিশুদের হুডি

শীত ফ্যশনের অন্যতম অনুসঙ্গ হুডি। শুধু বড়দের নয় বাজারে শিশুদের জন্যও রয়েছে বাহারি ডিজাইনর হুডি। শীতের হিমেল হাওয়া বইতে থাকলে মায়েরা আদর করে শিশুর মাথাটা হুডির হুড দিয়ে ঢেকে দিতে পারবেন। সুতি, কটন ও সফট কাপুড়ে তৈরীকরা নানান রঙের ফুলতোলা ডিজাইনের হুডি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। আপনি আপনার সোনামণির জন্য পছন্দ অনুযায়ী ফ্যাশনেবল কালেকশনটি খুঁজে নিন।

টুপি, জুতা ও অন্যান্য পোশাক

লাল নীল টুপিতে শিশুদের বেশ মানায়। তাছাড়া পায়ে রঙ্গিন কাপুড়ের জুতা থাকলে তো কথায় নেই। কান আর পা ঢাকা থাকলে শিশুর কাছে শীত ঘেঁষতেই পারবেনা। কানটুপি, মাফলার, হাত মোজা, পা মোজা শিশুকে শুধু উষ্ণতায় দেয় না পাশাপাশি এটি শিশুদের করে তুলবে স্টাইলিশও। কানটুপি, মাফলারে নানা ধরনের আকর্ষণীয় ঝালর, উলের বল, ফিতা সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিয়েছে বহু গুণ। শীতের এই সময়টাতে সব খানেই সোনামণির শীতের পোশাক পেয়ে যাবেন। পছন্দমত আপনি আপনার পছন্দেরটি বেছে নিন।

দরদাম ও কেনাকাটা

রাজধানী ঢাকার বড় বড় ফ্যাশন হাউজগুলো ছাড়াও দেশের সর্বত্র শিশুদের শীতের পোশাক পাবেন। শিশুদের পোশাকের দাম খুব একটা বেশি না তবে ভাল মানের পোশাক নিতে গেলে দাম একটু বেশিই পড়বে। সেক্ষেত্রে ১০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫ হাজার টাকার মধ্যে। চাইলে অনলাইন শপ গুলো থেকেও সোনামণির শীতের পোশাক কিনতে পারবেন।

লেখিকা পরিচিতি : মোসাম্মৎ সেলিনা হোসেন, ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক, ঢাকা।

x

Check Also

ফুলের নকশায় হয়ে উঠুন অনন্যা

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : উৎসব কিংবা অুনষ্ঠানে প্রতিটি মানুষই তার সাধ্যানুযায়ী পছন্দের পোশাক-পরিচ্ছদ ব্যবহার করে থাকেন। ...

Scroll Up