শীতের রাতে পার্টিতে জমকালো সাজ

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : শীতের রাতে দাওয়াত আর পার্টি যেন লেগেই থাকে। আজ জন্মদিন তো কাল বিয়ে, সেসব পার্টিতে যেতে হলে সাজ-পোশাকটাও হওয়া চাই মানানসই। বিশেষ করে রাতের বেলার সাজটা হওয়া চাই জমকালো। তবে শুধু সাজলেই হবে না, জানতে হবে এই সময়ের ট্রেন্ড। আর সে অনুযায়ী সাজতে পারলেই আপনি হয়ে উঠবেন নজরকাড়া ও আকর্ষণীয়।

শীত মানেই ফুল-অন পার্টি সিজন। নিজের সেরা লুকটা তো তুলে ধরতেই হবেই! বিউটি কোশেন্ট বাড়িয়ে সবার ঈর্ষার পাত্রী হয়ে ওঠার জন্য রইল কিছু রেড হট মেকআপ টিপস। টিপসগুলো দিয়েছেন দেশের খ্যাতিমান রূপ-বিশেষজ্ঞ মোসাম্মৎ সেলিনা হোসেন

পার্টি মানেই ভারী গহনা জমকালো পোশাক আর ভরপুর মেকআপ। আর তা যদি হয় শীত মৌসুমে তাহলে তো কোনো কথাই নেই। পোশাকের সঙ্গে সাজটাও হওয়া চাই আকর্ষণীয়। পার্টিতে যাওয়ার আগে মুখটা ভালো করে ফেসওয়াশ করে নিন। ফেসওয়াশের পর চোখের নিচে, নাকের দুপাশে, চিবুকের ওপর আঙ্গুল দিয়ে কন্সিলার বিন্দু বিন্দু আকারে লাগিয়ে নিন।

এরপর কালো দাগ ঢেকে গেলে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই মনে রাখবেন, আপনার মুখের রঙের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হয় কি না। ফাউন্ডেশন লাগানোর পর আপনার মুখ মেকআপের জন্য সম্পূর্ণভাবে তৈরি হবে। এবার চোখের সাজ দিয়ে মেকআপ শুরু করুন। পার্টির আমেজ আনতে চোখের সাজে প্রথমেই আইব্রো প্লাক করুন। পার্টি সাজে উজ্জ্বলতা আনাটা জরুরি।

বেইজ দীর্ঘস্থায়ী করতে বেকিং ভালো কাজে দেয়। বেকিং হল ফাউন্ডেশন দেয়ার পর ত্বকে অনেকটা লুজ পাউডার দিয়ে ১০ মিনিট রেখে তারপর ব্রাশ দিয়ে বাড়তি পাউডার ঝেরে ফেলা। এক্ষেত্রে শিমারি লুজ পাউডার ব্যবহার করতে পারেন।

গ্লসি সাজ কম-বেশি সবারই নজর কাড়ে। আইব্রো পেন্সিল দিয়ে সূক্ষ্ম রেখায় আইব্রো আঁকুন। গ্রে ও ব্ল্যাক শ্যাডো ব্যবহার করুন। আইব্রোর ঠিক নিচে হাইলাইট করুন গোল্ডেন আইশ্যাডো বা হাইলাইটার দিয়ে।

সাধারণত আমরা সবাই ড্রেসের সঙ্গে কালার মিলিয়ে আইশ্যাডো ব্যবহার করে থাকি। পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে আইশ্যাডো দিয়ে রাঙিয়ে নিন চোখের উপরের পাতা। সঙ্গে ব্ল্যাক শ্যাডো দিন চোখের ভাঁজে ও বাইরের কোনায়। চোখের ভিতরের কোনায় অল্প সিলভার আইশ্যাডো দিন।

কালো লিকুইড আইলাইনার দিয়ে মোটা রেখায় চোখ আঁকুন। নিচের পাতায় কাজল দিয়ে নিন। ঘন করে মাশকারা লাগান চোখের পাপড়িতে। কিন্তু লক্ষ্য রাখতে হবে কোন রংটি মানায়।

তবে রাতের অনুষ্ঠানে মাশকারা ও আইশ্যাডো ব্যবহার করুন। আইশ্যাডোর মতো বিভিন্নভাবে আইলাইনার দিতে পারেন। এর সঠিক কোনো নিয়ম নেই, যার চোখে যেভাবে ভালো লাগে সে সেভাবেই আইলাইনার দিয়ে নিন।

এখন কনট্যুরিং ট্রেন্ড চলছে। কনট্যুরিং করে শিমারি ব্লাশন দিয়ে ব্লাশন করুন। বেশ গর্জিয়াস লুক আসবে। চোখে হালকা আইশ্যাডো দিয়ে চোখের ওপর হাইলাইটিং করুন। মোটা করে আইভ্রু আর্ট করুন। এরপর কাজল লাগান। পার্টি সাজে গর্জিয়াস লুক আনতে ব্যবহার করতে পারেন রঙিন কাজল। এরপর মোটা করে আইলাইনার দিন। এখন মোটা করে আইলাইনার লাগনো চলছে।

যারা একটু বেশি সাজগোজ পছন্দ করেন তাদের জন্য ব্লাশ। গালের দুই পাশে নিচ থেকে উপরের দিকে ব্রাশ দিয়ে ব্লাশঅন করুন। যাদের রং ফর্সা তারা যে কোনো রঙের ব্লাশ লাগাতে পারেন আর যারা একটু কম ফর্সা তারা একটু হালকা রং লাগাবেন।

তবে রাতের অনুষ্ঠানে সবাই গাঢ় করে লাগাতে পারেন। এরপর ঠোঁটকে করে তুলুন আকর্ষণীয়। লিপস্টিকের ক্ষেত্রে প্রথমে একই রঙের লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট সুন্দর করে এঁকে নিয়ে লিপস্টিক দিয়ে ভরাট করে দিন।

এতদিন ম্যাট লিপস্টিক খুব চলছিল। তবে ফ্যাশন ট্রেন্ড বলছে নতুন সালে গ্লসি লিপস্টিক জনপ্রিয় হবে। এসময় রাতে ঝলমলে সাজে ব্যবহার করতে পারেন চেরি রেড, টমেটো রেড, ডিপ কফি, পামকিন, ব্লুবেরি, ডিপ পার্পেল, শকিং পিংক, পিচ রঙের গ্লসি নয়তো ক্রিমি লিপস্টিক। রাতের সাজে ভালো লাগবে মেটাল, গোল্ড, গোল্ড প্লেটেড কিংবা জাঙ্ক জুয়েলারি।

আর আপনার চুল যদি ছোট হয় তাহলে ছেড়ে দিতে পারেন। আবার পার্টির আগে ভালো হেয়ার আয়রন দিয়ে চুলটা সোজা করে নিতে পারেন। পার্টি সাজে ভারী গহনা বাদ দিয়ে পরতে পারেন মেটাল, এন্টিক ও রুপার গহনা। তবে অবশ্যই পোশাকের সঙ্গে মিল রেখে।

চুলগুলোকে ব্লো ডাই করে ছেড়ে দিতে পারেন। কিংবা ফন্টটুইস্ট করে পেছনে চুলগুলো নানাভাবে পেঁচিয়ে বাঁধতে পারেন। চুলে কার্লিভাবটাও এখন বেশ জনপ্রিয়। রোলার দিয়ে চুলে হালকা কার্লিভাব আনতে পারেন। হেয়ারস্টাইলে এখন এলোবেণী, লুজ বেণি, খেঁজুর বেণি, এলোখোঁপা দারুণ জনপ্রিয়।

x

Check Also

রূপচর্চায় দইয়ের ব্যবহার এবং উপকারিতা

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : রূপচর্চায় দইয়ের ব্যবহার এবং উপকারিতা সম্পর্কে বলতে গেলে প্রথমেই বলতে হয় ...

Scroll Up