আসছে গ্রীষ্মে সঙ্গী হোক ফ্যাশনেবল সানগ্লাস

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : যদিও এখন আর সানগ্লাস ফ্যাশনে সীমাবদ্ধ নেই। তবুও প্রয়োজন ও প্রিয়জন দুটোই ঠিক রাখতে সানগ্লাস অনেক জরুরি একটি আনুষঙ্গিক হয়ে দাঁড়িয়েছে। আসছে গ্রীষ্মে আপনার নিত্যদিনের সঙ্গী হোক ফ্যাশনেবল সানগ্লাস। তাছাড়া যারা বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল চালান তাদের জন্য অতি জরুরি একটি জিনিস সানগ্লাস। কারণ বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল চলন্ত অবস্থায় বাতাসের ধূলাবালি এবং পোকা-মাকড় আমাদের চোখে এসে পড়তে পারে। আর এসব ধূলাবালি ও পোকামাকড় থেকে রক্ষা করে সানগ্লাস। সানগ্লাস ব্যবহার করলে এসব থেকে রক্ষা তো পাবেনই সাথে বোনাস হিসেবে পাচ্ছেন স্টাইলিশ ফ্যাশনেবল লুক।
ফ্যাশনের সাথে সাথে সানগ্লাস আমাদের সব চাইতে বড় যে উপকার করে থাকে সেটা হচ্ছে, আমাদের চোখ ভালো রাখে। সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি আমাদের চোখের কর্নিয়ার ও রেটিনার দারুণ ক্ষতি করে। সানগ্লাস এই অতিবেগুনী রশ্মিকে শুধু আমাদের চোখ আসতে বাঁধা প্রদানই করে না বরং তা প্রতিহত করে। তাই সানগ্লাস শুধু ফ্যাশনে নয়, চোখের সুরক্ষায়ও প্রয়োজন।
বাহারি রঙ আর ভিন্ন ভিন্ন ডিজাইনে সমৃদ্ধ সানগ্লাসের সমাহার দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে, যদিও বর্হিবিশ্বে সানগ্লাসের ব্যবহার অনেক আগে থেকেই খুব জনপ্রিয়। আমাদের দেশে স্বাস্থ্য সচেতন এবং ফ্যাশনেবলরাই সব সময় সানগ্লাস ব্যবহার করে থাকেন।
সানগ্লাসের শেডস, ফ্রেম ইত্যাদি বাছাই করার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে নিজের চেহারার সাথে মানানসই সানগ্লাসটি চিনে নেওয়া। মুখের ধরন অনুযায়ী সানগ্লাস বেছে নিতে হবে।
ডিম্বাকৃতি চেহারা যাদের, তাদের মুখে মোটামুটি সব ধরনের সানগ্লাস মানায়। নিত্য-নতুন বিভিন্ন ধরনের সানগ্লাস ব্যবহার করে তাই নিজের চেহারায় আনুন বৈচিত্র। তবে চারকোণা ফ্রেমের সানগ্লাস এমন চেহারায় অধিক সামঞ্জস্য আনবে বলে মনে করি।
যাদের মুখ গোলগাল, তারা এমন ফ্রেমের সানগ্লাস পরবেন যেটা আপনার চেহারা খানিকটা লম্বাটে ও হালকা দেখাবে। চিকন ফ্রেমের সানগ্লাস এক্ষেত্রে না পরাটাই ভালো। চোখের ভ্রু খানিকটা ঢেকে রাখে, এমন সানগ্লাস আপনার গোল চেহারা অনেকাংশেই লম্বাটে দেখাবে। আয়তাকার ফ্রেমের সানগ্লাস পরিধান করাই এক্ষেত্রে শ্রেয়।
চতুর্ভুজাকৃতি চেহারার ফ্যাশন সচেতন পাঠকদের অনুরোধ করব, অতি তীক্ষ্ণ কোণবিশিষ্ট ফ্রেমের (কেটস আই) কোনো সানগ্লাস পরিধান করা থেকে বিরত থাকবেন। ক্লাসিক ডিম্বাকৃতির কিছু সানগ্লাস রয়েছে যা এমন মানুষদের চেহারায় ঠিকঠাক বসে যায়।
লম্বা মুখোদের চেহারার সাথে গোলাকৃতির সানগ্লাস ভালো যায়। এ ছাড়া চৌকাণ ফ্রেমের সানগ্লাসও তাদের ভালো মানাবে। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে যেন সানগ্লাসের ফ্রেম খুব ছোট না হয়, যা চেহারায় বেখাপ্পা দেখায়।
যাদের চেহারা কিছুটা ত্রিকোণাকৃতির, তারা ‘ক্যাটস-আই’ গোছের সানগ্লাস ব্যবহারে উপকৃত হবেন। এ ধরনের চেহারার সাথে মানানসই করতে সানগ্লাসের ফ্রেমের ওপরের অংশ সমান্তরাল দেখে পছন্দ করবেন।
যেহেতু সানগ্লাস ছাড়া আমাদের নতুন প্রজন্মের ফ্যাশন ঠিক জমছে না। তাই জানা দরকার সহজেই ফ্যাশনেবল সানগ্লাস কোথায় পাওয়া যাবে। আপনি যদি ভালো মানের সানগ্লাস বা চশমার ফ্রেমগুলো পেতে চান তাহলে ঢাকার এলিফেন্ট রোডে যেতে পারেন। এখানে আপনি ১০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫০০০ টাকা দামের সানগ্লাস পেতে পারেন।
এ ছাড়া বসুন্ধরা, নিউমার্কেট ও গাউছিয়া মার্কেটে ভালো মানের চশমা পাবেন। এ ছাড়াও যারা ঘরে বসে হাজারও কালেকশনের মধ্য থেকে পছন্দের সানগ্লাসটি বেছে নিতে চান তারা দেশের অনলাইন শপিং ওয়েবসাইটেগুলোতে গিয়ে নক করতে পারেন। অনলাইন সপগুলোতে সানগ্লাসের হাজারও কালেকশন রয়েছে যেখান থেকে আপনি আপনার পছন্দেরটি অর্ডার করতে পারবেন।
x

Check Also

বৈশাখী উৎসবের পোশাকে ফোক মোটিফ

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : দূয়ারে কড়া নাড়ছে বাঙালির প্রিয় উৎসব পহেলা বৈশাখ। বাঙালির এই প্রাণের ...

Scroll Up