গাজীপুর ও খুলনা সিটি নির্বাচন ১৫ মে

এমএনএ রিপোর্ট : গাজীপুর ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনে ১৫ মে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এই দুই সিটিতে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ১২ এপ্রিল। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৩ এপ্রিল। আর যাচাই বাছাই ১৫-১৮ এপ্রিল।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা আজ শনিবার শেরেবাংলা নগরের নির্বাচন কমিশন ভবনে এই তফসিল ঘোষণা করেন। এর আগে বেলা ১১টায় এ সংক্রান্ত বৈঠকে বসে কমিশন।
সিইসি বলেন, গাজীপুরে ভোটার ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২৫ জন। আর খুলনায় ভোটার ৪ লাখ ৯৪ হাজার ৪৫৪ জন।
এদিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিচালনার জন্য ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মন্ডলকে রিটার্নিং অফিসার এবং খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিচালনার জন্য খুলনার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলীকে রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে।
সূত্র জানায়, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই গাজীপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট এই পাঁচ সিটিতে ভোটগ্রহণ করতে হবে। তাই আসছে রমজানের আগে গাজীপুর ও খুলনা সিটি ভোট শেষ করে ঈদের পর অন্য তিন সিটিতে ভোট করবে ইসি।
ইসির সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হবে ৪ সেপ্টেম্বর, সিলেটের ৮ অক্টোবর, খুলনার ২৫ সেপ্টেম্বর, রাজশাহীর ৫ অক্টোবর এবং বরিশালের ২৩ অক্টোবর। স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন অনুযায়ী কর্পোরেশনের প্রথম বৈঠক থেকে ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার ১৮০ দিন আগে যেকোনো সময় নির্বাচন করতে হবে।
উল্লেখ্য ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড নিয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন গঠিত। অপরদিকে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সাধারণ ওয়ার্ড ৩১টি এবং সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড ১০টি।
আইন অনুযায়ী গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের দিন গণনা ৮ মার্চ ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের দিন গণনা ৩০ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে। এ কারণে কমিশন এ দুটি সিটি কর্পোরেশনের তফসিল ঘোষণা করেছে।
x

Check Also

নির্বাচন এক ঘণ্টাও আর পেছানো হবে না : এইচ টি ইমাম

এমএনএ রিপোর্ট : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছানো যাবে না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের নির্বাচন ...

Scroll Up