প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩৩ নং ওয়ার্ড কমিশনার তারেকুজ্জামান রাজীব।

নূর মসজিদের জমি রক্ষার্থে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সভা ও দোয়া

এমএনএ রিপোর্ট : রাজধানীর মোহাম্মদপুরে মোহাম্মদী হাউজিংয়ে অবস্থিত নূর মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ভূমিদস্যুচক্র হিসেবে পরিচিত জাপান গার্ডেন সিটির বিরুদ্ধে। অভিযোগে বলা হয়, জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে অত্র এলাকার ভূমিদস্যু হিসেবে খ্যাত জাপান গার্ডেন সিটির মালিকের ছেলে আসাদুর রহমান জামিল গংরা ওই মসজিদের ৯৬ শতাংশ জমি দখলের পাঁয়তারা করছে। সম্প্রতি  অভিযুক্তরা নিজেদের ক্ষমতা ও জোর খাটিয়ে নূর মসজিদের জমি দখলের ভয়ভীতি দেখালে এ ব্যাপারে মসজিদ কমিটি আদাবর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করে।
নূর মসজিদের জমি রক্ষার্থে আজ শুক্রবার বাদ জুমা নূর মসজিদ প্রাঙ্গণে মসজিদ রক্ষা সংগ্রাম কমিটি কর্তৃক আয়োজিত এক শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সভায় দলমত নির্বিশেষে অত্র এলাকার ৯টি মসজিদের প্রায় তিন সহাস্রাধিক ধর্মপ্রাণ মুসল্লির উপস্থিতিতে এ অভিযোগ করা হয়।
নূর মসজিদের জমি দখলের প্রতিবাদে “মোহাম্মদী হাউজিং লিঃ, সোসাইটি, নবোদয় সি-ব্লক মসজিদ রক্ষা সংগ্রাম কমিটি”আয়োজিত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩৩ নং ওয়ার্ড কমিশনার তারেকুজ্জামান রাজীব। সভায় সভাপতিত্ব করেন নূর মসজিদের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হোসেন। সভা পরিচালনা করেন ৩৩ নং ওয়ার্ডের নাগরিক কমিটির সভাপতি সাইদুল ইসলাম বাদল।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় কমিশনার ও সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক তারেকুজ্জামান রাজীব বলেন, “মসজিদ হলো মহান আল্লাহর ঘর। আল্লাহর খুশির জন্য এই মসজিদে ইবাদত করা হয়। তাই মসজিদের পবিত্রতা রক্ষা করা আমাদের সকলের দায়িত্ব। কিন্তু কেউ যদি এই পবিত্র ঘরের জায়গা দখল করার দৃষ্টতা দেখায় তাহলে তাদেরকে সম্মিলিতভাবে রুখতে হবে। এইসব ভূমিদস্যুদের জমি দখলের পাঁয়তারাকে নস্যাৎ করার জন্যই গঠন করা হয়েছে মসজিদ রক্ষা সংগ্রাম কমিটি। এ লক্ষে মোহাম্মদী হাউজিং লিঃ, সোসাইটি, নবোদয় সি-ব্লক মসজিদ রক্ষা সংগ্রাম কমিটি নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। মোহাম্মদী হাউজিংয়ে অবস্থিত নূর মসজিদের জমি দখলের পাঁয়তারাকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে মোহাম্মপুরস্থ ৭০টি মসজিদ কমিটি ও ওইসব মসজিদের ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা আমাদের পাশে থাকার আশ্বাস ও সমর্থন জানিয়েছে। বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্য ও প্রশাসনের জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যে এ ব্যাপারে প্রশাসন উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ গ্রহণ করায় আজকের বিক্ষোভ সমাবেশ সঙ্কুচিত করে অত্র এলাকার ৯টি মসজিদের মুসল্লীদের নিয়ে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ ও দোয়ার মাধ্যমে কর্মসূচী শেষ করা হচ্ছে। তবে এইসব ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে আমাদের আরও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আরও জোরালো ভূমিকা রাখতে হবে। নূর মসজিদের জমি রক্ষার্থে প্রয়োজনে মোহাম্মপুরের ৭০টি মসজিদের সকল কমিটি ও মুসল্লীদের সাথে নিয়ে বৃহৎ আন্দোলন, সংগ্রাম এবং বিক্ষোভ সমাবেশের মাধ্যমে ওইসব ভূমিদস্যুর ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করা হবে।”
প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে প্রতিবাদ সভায় দোয়া পরিচালনা করেন মোহাম্মদী হাউজিং সোসাইটির বায়তুল ওয়াহাব মসজিদের খতিব মুফতি বোরহান উদ্দীন কাশেমী।
উক্ত শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সভায় মোহাম্মদী হাউজিং সোসাইটি মালিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি আমির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদরুল বারী চৌধুরী, মোহাম্মদী হাউজিং লিঃ মালিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব খসরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক আলীম, বায়তুল ওহাব জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব জলিল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব রিপন, খতিব ও ইমাম, কোব্বা মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, মোহাম্মদীয়া জামে মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, মসজিদে তাক্কওয়া-এর সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, মসজিদে আব্দুল কাদের জিলানীর সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, মোহাম্মদী সোসাইটি কাঁচাবাজার জামে মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, নূর মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, মোহাম্মদী হোমস্ জামে মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, নবোদয় সি-ব্লক মসজিদের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, খতিব ও ইমাম, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং কয়েক হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লী উপস্থিত ছিলেন।
মসজিদ রক্ষা সংগ্রাম কমিটির প্রতিবাদ সভাটি শান্তিপূর্ণ ও নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করার জন্য এসময় নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ছিল অর্ধ শতাধিক পুলিশ ও আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য।
x

Check Also

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রথম সমাবেশ সিলেটে

এমএনএ রিপোর্ট : অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ নিজেদের সাত দফা ...

Scroll Up