কিমকে যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন ট্রাম্প

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : সিঙ্গাপুরের সম্মেলন যদি ঠিকঠাক মত হয় তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়া নেতা কিম জং-উনকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন।
আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে ট্রাম্প-কিম নজিরবিহীন বৈঠকে হতে চলেছে।
খবরে বলা হয়, ১২ জুন কিমের সঙ্গে অনুষ্ঠেয় বৈঠক নিয়ে সম্প্রতি জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে এক বৈঠক করেছেন ট্রাম্প। বৈঠকের পরপরই কিমকে যুক্তরাষ্ট্রে নিমন্ত্রণ জানানোর বিষয়ে মন্তব্য করেন তিনি।
ট্রাম্প বলেন, সম্ভাবনা রয়েছে যে, কিমের সঙ্গে কোরীয় যুদ্ধ নিয়েও কোন সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেন তিনি। তবে তিনি জানিয়েছেন, মূল আলোচনা শেষ হওয়ার পরে এই বিষয়ে আলোচনা হতে পারে। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, সত্যিকারে যা গুরুত্বপূর্ণ তা শেষ হওয়ার পর এই বিষয়টি আসবে।
ট্রাম্প ও তার আঞ্চলিক মিত্ররা চায় যে, উত্তর কোরিয়া যেন তাদের পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচি বন্ধ করে দেয়। ট্রাম্প জানিয়েছেন, সে লক্ষ্য অর্জন করতে একটি বৈঠক যথেষ্ট হবে না। একাধিকবার বৈঠকে বসতে হবে।
ট্রাম্পের সংবাদ সম্মেলনের পর মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, কিম জন উন তাকে ব্যক্তিগতভাবে ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে ইচ্ছুক।
তবে ট্রাম্প জানেন এজন্য ‘দীর্ঘ আলোচনার প্রয়োজন’। এক বৈঠকে এই লক্ষ্যে উপনীত হওয়া সম্ভব নাও হতে পারে।
উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র প্রকল্প বন্ধ করতে সবসময়ই ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ কথা বলে এসেছেন ট্রাম্প।
তবে এখন আর তিনি এ কথা বলতে চান না, ‘কারণ আমরা এখন বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার দিকে অগ্রসর হচ্ছি’।
তবে তিনি সতর্ক করে দিয়ে এও বলেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে এখনও তিনি অনেক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারেন।
সিঙ্গাপুরের সম্মেলন যদি ঠিকমত অগ্রসর না হয় তবে সেটা থেকে ‘বেরিয়ে আসতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত আছেন’ জানিয়ে ট্রাম্প বলেন, সব ঠিকঠাক মত হলে কিমকে ওয়াশিংটন সফরের আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়টি উড়িয়ে দেওয়া যাবে না।
ট্রাম্প বলেন, নিশ্চিতভাবেই যদি সব ঠিক মত হয়, যদিও আমার মনে হয় সব ঠিকই থাকবে। আমার বিশ্বাস কিম এটাকে খুবই ইতিবাচক হিসেবে নেবেন, তাই মনে হয় এটা হতে পারে।
কিমের সঙ্গে বৈঠকের প্রস্তুতি নিয়ে প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, আমার প্রস্তুতি খুব ভালো হয়েছে বলেই আমার মনে হয়। যদিও আমার খুব বেশি প্রস্তুতির প্রয়োজন হবে বলে মনে হয় না। এটা দৃষ্টিভঙ্গির বিষয়, এটা ভালো কিছু করার ইচ্ছার বিষয়।
যুক্তরাষ্ট্রের বাস্কেটবল খেলোয়াড় ডেনিস রোডম্যান বেশ কয়েকবার উত্তর কোরিয়া সফর করেছেন এবং কিমের সঙ্গে তার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আছে।
রোডম্যানকে সম্মেলনে ডাকা হতে পারে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল।
ওই গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে ট্রাম্প বলেন, তিনি চমৎকার একজন মানুষ, আমি তাকে পছন্দ করি। না, তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।
x

Check Also

সৌদি যুবরাজের সঙ্গে প্রেম ছিল ট্রাম্প-পুত্রবধূর!

এমএনএ ইন্টার‌্যাশনাল ডেস্ক : আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রকে বিয়ের আগে ...

Scroll Up