ওয়ানডেতে ৪৮১ রানের বিশ্ব রেকর্ড গড়লো ইংল্যান্ড

এমএনএ স্পোর্টস ডেস্ক : ট্রেন্ট ব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে জনি বেয়ারস্টো ও অ্যালেক্স হেলসের ঝড়ো সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৪৮১ রানের বিশ্ব রেকর্ড গড়লো ইংল্যান্ড।
একদিনের ক্রিকেটে অতীতে নিজেদের গড়া রেকর্ড ভেঙে নতুন ইতিহাস গড়ল ইয়ন মর্গানের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। এতদিন ওয়ানডে ক্রিকেটে ইংলিশদের গড়া ৪৪৪ রানই ছিল দলীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। গতকাল মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বেয়ারস্টো এবং অ্যালেক্স হেলসের জোড়া সেঞ্চুরিতে ৬ উইকেটে ৪৮১ রান সংগ্রহ করে নতুন রেকর্ড গড়ে ইংল্যান্ড।
পাঁচ ম্যাচের সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গতকাল মঙ্গলবার ট্রেন্ট ব্রিজে ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৪৮১ রান তুলেছে ইংল্যান্ড।
ওয়ানডে ক্রিকেট এই প্রথম দেখল সাড়ে চারশ ছাড়ানো স্কোর। ২০১৬ সালে এই ট্রেন্ট ব্রিজেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ৪৪৪ রান ছিল ওয়ানডের আগের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।
ইংল্যান্ডের হয়ে বিস্ফোরক সেঞ্চুরি করেছেন জনি বেয়ারস্টো ও অ্যালেক্স হেলস। ওপেনার জেসন রয় ও অধিনায়ক ওয়েন মর্গ্যানও খেলেছেন খুনে দুটি ইনিংস।
এক সময় ইংল্যান্ডের ৫০০ রান হওয়াটাও অসম্ভব মনে হচ্ছিল না। তবে শেষ তিন ওভারে কোনো বাউন্ডারি মারতে পারেননি ইংলিশরা।
ইংল্যান্ডের বিশ্বরেকর্ডের ভিত গড়ে দেয় অসাধারণ ফর্মে থাকা উদ্বোধনী জুটি। বেয়ারস্টো ও রয় আবারও চালিয়েছেন তাণ্ডব।
শুরুটায় বিধ্বংসী কিছুর ইঙ্গিত ততটা ছিল না। দুজনের জুটিতে পঞ্চাশ এসেছিল ৪৬ বলে। থিতু হওয়ার পর দুজনই কচুকাটা করেছেন বোলারদের।
অস্ট্রেলিয়ান বোলাররা যখন অসহায়, অপ্রতিরোধ্য মনে হওয়া এই উদ্বোধনী জুটি ভাঙে তখন রান আউটে। ডার্চি শর্টের দারুণ ফিল্ডিংয়ে রান আউট হন রয়। ৭ চার ও ৪ ছক্কায় ততক্ষণে করেছেন ৬১ বলে ৮২ রান। বেয়ারস্টোর সঙ্গে রয়ের উদ্বোধনী জুটিতে ১৫৯ রান এসেছে ১১৭ বলে।
জুটি ভাঙলেও ইংল্যান্ডের রানের জোয়ারে বাঁধ দেওয়া যায়নি। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতেও দেড়শর বেশি রান এসেছে আরও দ্রুত গতিতে। বেয়ারস্টো ও অ্যালেক্স হেলস ১৫১ রানের জুটি গড়েন মাত্র ৮৮ বলেই।
৬৯ বলেই বেয়ারস্টোর স্পর্শ করেন সেঞ্চুরি। গত ছয় ওয়ানডেতে তার চতুর্থ সেঞ্চুরি।
৩৩.১ ওভারেই ইংল্যান্ডের রান ছুঁয়ে ফেলে ৩০০।
বেয়ারস্টোর ঝড় ছিল সেঞ্চুরির পরও। শেষ পর্যন্ত অ্যাশটন অ্যাগারের বলে আউট হয়েছেন ৯২ বলে ১৩৯ রানে। ইনিংসে মেরেছেন ১৫ চার ও ৫ ছক্কা।
মঞ্চ সাজানো পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি জস বাটলার। তবে কাজে লাগাতে ভুল করেননি মর্গ্যান। হেলসের সঙ্গে জুটিতে চালান তাণ্ডবলীলা। চতুর্থ উইকেটে ১২৪ রানের টর্নেডো জুটি গড়েন মাত্র ৬১ বলে। ইংল্যান্ড ৪০০ রান তুলে ফেলে ৪৩ ওভারেই।
রয়-বেয়ারস্টোর কাছে ওপেনিংয়ে জায়গা হারানো হেলস সেঞ্চুরি করেন ৬২ বলেই। ওয়ানডেতে এটি তার ষষ্ঠ সেঞ্চুরি।
রেকর্ডের মিছিলে সামিল হন মর্গ্যানও। পঞ্চাশ করেন ২১ বলে। ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের হয়ে এটি দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড। ইনিংসটির পথে ইয়ান বেলকে ছাড়িয়ে ইংল্যান্ডের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে রানের রেকর্ডও নিজের করে নিয়েছেন মর্গ্যান।
শেষ পর্যন্ত এই দুজন আউট হন জাই রিচার্ডসনের পরপর দুই বলে। ১৬ চার ও ৫ ছক্কায় ৯২ বলে ১৪৭ রান করেছেন হেলস। তিনটি চার ও ছয় ছক্কায় ৩০ বলে ৬৭ মর্গ্যান।
সব মিলিয়ে ইংল্যান্ডের ইনিংসে ছিল ২১টি ছক্কা। একটি ছক্কার জন্য ছোঁয়া হয়নি ওয়ানডেতে দলীয় ছক্কার রেকর্ড।
৯ ওভারে ১০০ রান দিয়ে উইকেটশূন্য অস্টেলিয়ান পেসার অ্যান্ড্রু টাই। ১০ ওভারের কম বল করেও ওয়ানডেতে রান দেওয়ার সেঞ্চুরি করা তৃতীয় বোলার তিনি।
৩ উইকেট নিলেও ১০ ওভারে ৯২ রান খরচ করেছেন রিচার্ডসন। মার্কাস স্টয়নিসের ৮ ওভারে এসেছে ৮৫।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ইংল্যান্ড : ৫০ ওভারে ৪৮১/৬ (রয় ৮২, বেয়ারস্টো ১৩৯, হেলস ১৪৭, বাটলার ১১, মর্গ্যান ৬৭, মইন ১১, রুট ৪*, উইলি ১*; স্ট্যানলেক ০/৭৪, রিচার্ডসন ৩/৯২, অ্যাগার ১/৭০, টাই ০/১০০, ম্যাক্সওয়েল ০/২১, স্টয়নিস ০/৮৫, ফিঞ্চ ০/৭, শর্ট ০/২৩)
x

Check Also

টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

এমএনএ রিপোর্ট : এবারের এশিয়া কাপের শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচ দিয়ে। আজ শনিবার দুবাই আন্তর্জাতিক ...

Scroll Up