বাজারে মৌসুমি ফলের সমাহার

এমএনএ রিপোর্ট : মৌসুমী ফলে ভরে উঠেছে রাজধানীর ফলের বাজার। রোজায় স্বস্তি ও পুষ্টি পেতে আম, জাম, লিচু, তরমুজ, বাঙ্গিসহ নানা রসালো ফল ঘরে নিচ্ছেন মানুষ।

রাজধানীর কারওয়ানবাজারের ফলের আড়তগুলোতে দেখা যায় বিরাহমীন ব্যস্ততা। দাম নিয়ে অসন্তুষ্টি থাকলেও বাজারের বিভিন্ন প্রান্তে বিশেষ করে সবজি বাজারের পাশে ফুটপাতে বসা ফলের খুচরা দোকানগুলোতেও ছিল ক্রেতাদের ভিড়।

জ্যৈষ্ঠ মাসের মাঝামাঝিতে দেশের বাজারে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসেছে আম, জাম, তরমুজ, লিচু, বাঙ্গি, আনারস, পেঁপেসহ বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী ফল।

কারওয়ানবাজারের এক আড়তদার বলেন, এই মুহূর্তে বাজারে যেসব আম দেখা যাচ্ছে তার অধিকাংশই সাতক্ষীরা অঞ্চলের, এগুলো আকারে একটু ছোট। কিছুদিনের মধ্যে রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রংপুরসহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে আম আসা শুরু হবে।

সেগুলো আকারে যেমন বড় হবে দামও হবে আরেকটু বেশি। এখন পাইকারিতে প্রতি কেজি আম ৪০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এই বাজারে সাতক্ষীরা থেকে আসা ছোট আকারের হিমসাগর ও আম রুপালি ৬০ টাকা থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হলেও মহাখালী ও মিরপুরসহ ঢাকার অন্যান্য বাজারগুলোতে এসব আমের দাম প্রতি কেজি একশ টাকার কাছাকাছি।

এদিকে চলতি মৌসুমের শেষ প্রান্তে তরমুজের দাম গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। রোজার শুরুতে তরমুজের কেজি ১৫ থেকে ২০ টাকা থাকলেও এখন প্রতি কেজি তরমুজ ৩০ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

তরমুজের দাম বাড়লেও গত এক সপ্তাহ ধরে কমেছে আনারসের দাম। এখন বড় আকারের একজোড়া আনারস পাওয়া যাবে ৫০ টাকায়। বাজারে কোনো কোনো দোকানে জামও দেখা গেছে। যদিও এর দাম তুলনামূলক বেশি বলে জানিয়েছেন অধিকাংশ ক্রেতা। কারওয়ান বাজারে জাম বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকা কেজি দরে।

এরই মধ্যে উত্তরাঞ্চলের দিনাজপুর, রাজশাহী ও ঈশ্বরদী থেকে ঢাকার বাজারগুলোতে এসেছে গ্রীষ্মের সবচেয়ে স্বল্প মেয়াদি ফল লিচু। সরবরাহ বেশি থাকায় দামও সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

আড়তদার আলাউদ্দিন বলেন, একশ লিচু দেড়শ থেকে দুইশ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কারওয়ানবাজারেই খুচরা হিসেবে দুইশ থেকে আড়াইশ টাকায় বিক্রি হচ্ছে একশ’ লিচু।

মহাখালী কাঁচাবাজারের এক ফল বিক্রেতা বলেন, এই মুহূর্তে দেশি ফলে বাজার সয়লাব হলেও আমদানি করা ফলের আবেদন মোটেও কমেনি। দামেও তেমন কোনো পরিবর্তন আসেনি, দাম দীর্ঘদিন ধরেই একই রকম। ফলের আমদানি মূল্যের ওপর খুচরা দাম নির্ভর করে। বাজারে এখন প্রতিকেজি নাসপাতি ১৬০ টাকা, মাল্টা ১৪০ টাকা, আপেল ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সাইফুল ইসলাম নামের এক ক্রেতা বলেন, অন্যান্য বাজারের তুলনায় এখানে ফলের দাম তুলনামূলক কম। জেলা শহর থেকে আসার কিছুক্ষণের মধ্যেই এই বাজার থেকে তাজা ফল কেনা যায়।

x

Check Also

পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে নয়াপল্টন রণক্ষেত্র

এমএনএ রিপোর্ট : রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশ-বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়েছে। ...

Scroll Up