জামিনে মুক্তি পেলেন নাজিব রাজাক

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তারের একদিন পর মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাককে জামিনে মুক্তি দিয়েছেন দেশটির আদালত। ওয়ানএমডিবি নামের রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে কয়েক মিলিয়ন ডলার আত্মসাতের অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ বুধবার মুক্তি পাওয়ার পর সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে অর্থ লুটের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন। কুয়ালালামপুরের আদালতে ক্ষমতার অপব্যবহারসহ ও ২০১৪ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে ৪২ মিলিয়ন রিঙ্গিত (এক কোটি মার্কিন ডলার) নিজের অ্যাকাউন্টে হস্তান্তরের দায়ে বিশ্বাসভঙ্গের তিনটি ফৌজদারি অভিযোগ আনা হয় নাজিবের বিরুদ্ধে।

এক মিলিয়ন মালয়েশীয় রিঙ্গিতের বিনিময়ে আদালত সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর জামিন মঞ্জুর করেছেন। জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর নিজেকে নির্দোষ প্রমাণের অঙ্গীকার করেছেন তিনি। আদালত আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিবের বিরুদ্ধে শুনানি কার্যক্রম আবারো শুরু হবে বলে সময় নির্ধারণ করেছেন।

আদালত থেকে বেরিয়ে নাজিব রাজাক বলেন, ‘আমি এর মাধ্যমে (জামিনের) আশা করছি, বিচারের প্রক্রিয়া সত্যিই ন্যায্য এবং আইনের শাসন অনুসরণ করে। আমি নির্দোষ এবং এতে আমার দৃঢ় আত্মবিশ্বাস রয়েছে। নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য এটাই অামার সুবর্ণ সুযোগ।’

রাষ্ট্রীয় তহবিলের অর্থ নিজের অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরসহ অন্য তিনটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেক অভিযোগের দায়ে ২০ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

তবে নাজিব রাজাক বলেছেন, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার নাজিবকে গ্রেপ্তারের পর তার সৎ ছেলে ও হলিউডের চলচ্চিত্র প্রযোজক রিজা আজিজকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দেশটির দুর্নীতি দমন সংস্থা।

x

Check Also

দলীয় সরকারের অধীনেও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব : টিআইবি

এমএনএ রিপোর্ট : ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) মনে করে দলীয় সরকারের অধীনেও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব। ...

Scroll Up