আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস আজ

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : আজ ১৫ সেপ্টেম্বর, আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস। গণতন্ত্র সম্পর্কে আগ্রহ সৃষ্টি এবং এর চর্চাকে উৎসাহিত করতে ২০০৭ সালে এই দিবস পালনের ঘোষণা দেয় জাতিসংঘ। এরপর থেকেই জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবছর ১৫ সেপ্টেম্বর বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস পালিত হয়ে আসছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ঠিক করা হয়েছে, ‘গণতন্ত্র চাপে পড়েছে। গণতন্ত্রই পরিবর্তনশীল বিশ্বের জন্য সমাধান।’

এই দিবস উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে জাতিসংঘের মহাসচিব বলেন, বিগত শতাব্দীগুলোর যেকোনো সময়ের তুলনায় গণতন্ত্র এখন অপেক্ষাকৃত বেশি চাপের মধ্যে রয়েছে। এ কারণে এই আন্তর্জাতিক দিবসে আমাদের উচিত গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে সম্ভাব্য উপায় এবং যে পদ্ধতিগত চ্যালেঞ্জগুলো গণতন্ত্রকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে সেগুলোর সমাধান অনুসন্ধান করা।

জাতিসংঘ মহাসচিব গণতন্ত্র শক্তিশালী করতে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক বৈষম্য মোকাবিলার তাগিদ দিয়েছেন। বিশেষ করে তরুণ ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভুক্ত করার পাশাপাশি নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় গণতন্ত্রকে আরও উদ্ভাবনী ও ইতিবাচকভাবে ক্রিয়াশীল করে গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। বিশ্ববাসীকে তিনি বলেছেন, আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবসে আসুন আমরা গণতন্ত্রের ভবিষ্যতের জন্য যৌথভাবে কাজ করার অঙ্গীকার করি।

জাতিসংঘ বলছে, সর্বজনীন মানবাধিকার ঘোষণার ৭০তম বার্ষিকীর এই বছরে আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস গণতন্ত্রের মূল ভিত্তি, মূল্যবোধ ও মানবাধিকারের গুরুত্ব তুলে ধরার সুযোগ এনে দিয়েছে। গণতন্ত্রের অন্যতম অপরিহার্য উপাদান হলো মানবাধিকার। টেকসই উন্নয়নের জন্য ২০৩০ এজেন্ডায়ও ষোড়শ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য হিসেবে গণতন্ত্রকে রাখা হয়েছে। সেখানে শান্তিপূর্ণ সমাজ এবং কার্যকর, জবাবদিহিমূলক ও অংশগ্রহণমূলক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অবিচ্ছেদ্য সংযোগের কথা বলা হয়েছে।

জাতিসংঘ সূত্রে জানা যায়, ১৯৮৮ সালে ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট কোরাজন সি একুইনো গণতন্ত্র নবায়ন ও পুনরুদ্ধারের আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে এর সূচনা ঘটান। প্রাথমিকভাবে সরকার, সংসদ সদস্য ও সিভিল সোসাইটির সদস্যদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আন্তঃসরকারি ফোরাম গঠন করা হয়। এ সম্মেলনে গণতন্ত্রের নীতি ও মূল্যবোধকে বিশ্বব্যাপী কার্যকরভাবে প্রয়োগের লক্ষ্যে কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা করা হয়। সম্মেলনের আলোকে কাতার আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস প্রতিষ্ঠার জন্য জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে একটি প্রস্তাব উপস্থাপন করে।

পরবর্তী সময়ে আলোচনাক্রমে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ ২০০৭ সালের ৮ নভেম্বর গৃহীত এ/৬২/৭ নং রেজ্যুলেশনের অনুবলে প্রতিবছর ১৫ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস পালনের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

গণতন্ত্র এমন একটি শাসনব্যবস্থা, যেখানে প্রত্যেক নাগরিকের নীতিনির্ধারণ বা সরকারি প্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে সমান ভোট বা অধিকার আছে। গণতন্ত্রে আইন প্রস্তাবনা, প্রণয়ন ও তৈরির ক্ষেত্রে সব নাগরিকের অংশগ্রহণের সমান সুযোগ রয়েছে, যা সরাসরি বা নির্বাচিত প্রতিনিধির মাধ্যমে হয়ে থাকে।

বাংলাদেশেও সংসদীয় গণতন্ত্র চালু রয়েছে। এখানে সর্বময় ক্ষমতা জনগণের দ্বারা নির্বাচিত সংসদের ওপরে ন্যস্ত থাকে। এই ব্যবস্থায় সরকারপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন প্রধানমন্ত্রী। এ ধরনের শাসনব্যবস্থায় প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা নগণ্য। যুক্তরাজ্য, ভারতসহ বিশ্বের অনেক দেশেই বর্তমানে সংসদীয় গণতন্ত্র চালু আছে।

x

Check Also

মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে ঢাকায় রবার্ট মিলার

এমএনএ রিপোর্ট : ১৬তম মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব নিতে গতকাল রবিবার বিকালে ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন ...

Scroll Up