মোবাইল অপারেটর বদলের এমএনপি চালু হচ্ছে আজ

এমএনএ রিপোর্ট : নম্বর না বদলে মোবাইল অপারেটরের নেটওয়ার্ক বদলের সেবা এমএনপি আজ সোমবার থেকে চালু হচ্ছে। সকাল ১১টায় বিটিআরসি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সেবার উদ্বোধন করবেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

অবশ্য এর আগেই সকাল ৯টা থেকে গ্রাহকরা এ সেবা উপভোগ করতে পারবেন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন এমএনপি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইনফোজিলিয়নের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাবরুর হোসেন।

মাবরুর হোসেন জানান, আজ মধ্যরাত থেকে দেশে পরীক্ষামূলকভাবে শুরু হয়েছে মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি (এমএনপি) সেবা। গ্রাহকেরা এখন মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলাতে পারবেন। এজন্য গত রাত ১২টা থেকেই এমএনপি সেবা কার্যক্রমের কারিগরি ক্ষেত্র উন্মুক্ত হয়েছে গ্রাহকদের জন্য। আজ সকাল ৯টা থেকেই মোবাইল অপারেটরদের কাস্টমার কেয়ারগুলো থেকে এমএনপি সেবার মাধ্যমে গ্রাহকরা নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদলের সুবিধা পাবেন।

গ্রাহক যে অপারেটরের নেটওয়ার্কে যেতে চান, তাকে সেই অপারেটরের কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে। সেখানে তিনি ৫০ টাকা ফি দিয়ে বায়োমেট্রিক নিবন্ধন সম্পন্ন করে সিমকার্ড প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অপারেটর বদল করতে পারবেন। ৫০ টাকা ফি’র সঙ্গে সরকার নির্ধারিত হারে ভ্যাট যুক্ত হবে। প্রি-পেইড গ্রাহকদের ক্ষেত্রে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এবং পোস্ট-পেইড গ্রাহকদের ক্ষেত্রে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এ সেবা সক্রিয় হয়ে যাবে।

অপারেটর বদলাতে গ্রাহককে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যাবলি নিয়ে সংশ্লিষ্ট অপারেটরের (যেটায় যেতে আগ্রহী) কাস্টমার কেয়ার বা সেবা কেন্দ্রে যেতে হবে। নিয়ম অনুযায়ী, ৭২ ঘণ্টার মধ্যে নতুন সিমটি চালু হওয়ার কথা। একবার অপারেটর বদলালে গ্রাহককে নতুন অপারেটরে ৯০ দিন থাকতে হবে।

একবার অপারেটর বদলাতে গ্রাহকের ফি ৫০ টাকা। এর ওপর ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট আছে। ফলে গ্রাহকের ফি দাঁড়াচ্ছে ৫৭ টাকা ৫০ পয়সা। প্রতিবার অপারেটর বদলাতে গ্রাহককে নতুন সিম নিতে হবে। সিম পরিবর্তন বা রিপ্লেসমেন্টের ওপরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ১০০ টাকা কর আছে। ফলে সব মিলিয়ে গ্রাহকের ফি দাঁড়াচ্ছে ১৫৮ টাকা। অবশ্য অপারেটরেরা গ্রাহক টানতে তাদের কাছ থেকে ফি কম নিতে পারে। ফলে অপারেটরেরা কত টাকা নেবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। এর বাইরে অপারেটরের ফি আছে ১০০ টাকা, যা এমএনপি সেবাদাতাকে দিতে হবে।

জানা গেছে, সব কটি অপারেটরই এ সেবা দিতে প্রস্তুত। এ বিষয়ে সবচেয়ে বড় অপারেটর গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অফিসার মাহমুদ হোসেন বলেন, ‘আমরা গ্রাহকদের স্বাগত জানাতে সব প্রস্তুতি শেষ করেছি। আমাদের নেটওয়ার্ক দেশসেরা। গ্রাহকেরা এ নেটওয়ার্কে এলে তাদের অর্থের সবচেয়ে বেশি উপযোগিতা পাবেন। গ্রাহকেরা গ্রামীণফোনের ওপর তাদের আস্থা অব্যাহত রাখবে, এ আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে।’

এ দিকে দ্বিতীয় শীর্ষ অপারেটর রবি আজিয়াটা এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, তাদের গড়া দেশের বৃহত্তম ৪ দশমিক ৫ জি নেটওয়ার্কে গ্রাহককে স্বাগত জানানোর সুযোগ পেয়ে তারা আনন্দিত। তাদের গ্রাহক হলে যেকোনো অপারেটরে ৫০ পয়সা মিনিট রেটে কথা বলা যাবে। রবির গণমাধ্যম ও যোগাযোগ বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইকরাম কবীর বলেন, রবি ও এয়ারটেল নেটওয়ার্কে যোগ দিলে সেরা ভিডিও ও ইন্টারনেট সেবা উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহকেরা।

গত বছর নভেম্বর মাসে ইনফোজিলিয়ন এমএনপি সেবার লাইসেন্স পায়। প্রথম দফায় চলতি বছরের মার্চের মধ্যে এ সেবা চালু করার কথা ছিল। তবে কারিগরি প্রক্রিয়া শেষ করতে দু’দফা সময় বাড়ানো হয়।

x

Check Also

আজ বৃহস্পতিবারের দিনটি আপনার কেমন যাবে?

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : আজ ১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার। নতুন সূর্যালোকে আজ বৃহস্পতিবারের দিনটি আপনার ...

Scroll Up