আজ সন্ধ্যা থেকে হঠাৎ ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম অকার্যকর!

এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : বিশ্বের সর্ববৃহৎ সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম আজ সন্ধ্যা থেকে হঠাৎ করেই অকার্যকর হয়ে পড়েছে। জানা যায়, আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টার পর বিশ্বব্যাপী সামাজিকমাধ্যম দুটিতে এ সমস্যা দেখা দেয়।

যুক্তরাজ্যের বিখ্যাত সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেনডেন্টসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এ খবর দিয়েছে।

সন্ধ্যা ৬টার পর বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারীরাও এ সমস্যার সম্মুখীন হয়। ফেসবুকে কোনো কিছু শেয়ার দিতে গেলে বা অন্যান্য ফিচার ব্যবহার করতে গেলে সমস্যা দেখা যায়।

ফেসবুকের পেজে কোনো ফিচার ব্যবহার করতে গেলে হোম পেজে ‘সার্ভিস আনএভেইলেবল’ লেখা প্রদর্শন করে।

ইনস্টাগ্রামের লগইন করার চেষ্টা করা হলে ‘দ্য ওয়েব সার্ভিস উডনট লোড’ (এই ওয়েবসাইট লোড নেয়া সম্ভব হচ্ছে না) লেখা প্রদর্শন করে।

রাত সাড়ে ৮টায় এ খবর লেখা পর্যন্ত ফেসবুক ও ইনস্তাগ্রামে এ সমস্যা অব্যহত ছিল।

উল্লেখ্য, এর আগে গতকাল সোমবার বিকেল থেকে স্কাইপি ব্যবহার করা যাচ্ছিল না। স্কাইপি’র মূল ওয়েবসাইটেও ঢোকা যাচ্ছিল না। এমনকি স্কাইপি অ্যাপটিও স্মার্টফোন কিংবা কম্পিউটার থেকে ব্যবহার করা যায়নি।

বিটিআরসি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হক গণমাধ্যমকে সোমবার বলেন, বিটিআরসি স্কাইপি বন্ধ রাখার মত কোন পদক্ষেপ নেয়নি, কোন নির্দেশও দেয়নি। নিছক কারিগরি ত্রুটির কারণে কোন কোন ব্যবহারকারী সমস্যায় পড়তে পারেন বলেও অভিমত দেন তিনি। কেউ ব্যবহার করতে না পারলেই স্কাইপি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এটা বলা সমীচীন নয়।

তবে ইন্টারনেট গেটওয়ে এবং মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবাদান সংক্রান্ত একাধিক সূত্র জানায়, স্কাইপি’র লিংক বন্ধ রাখার জন্য তারা নির্দেশিত হয়েই লিংক বন্ধ রেখেছেন।

কিভাবে নির্দেশ পেয়েছেন জানতে চাইলে একটি সূত্র জানায়, তারা ই-মেইল বার্তায় নির্দেশ পেয়েছেন এবং নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি। প্রথমে স্কাইপি’র ওয়েবসাইটের ডোমেইন লিংক স্কাইপি ডট কম বন্ধের নির্দেশ আসে। পরে স্কাইপি অ্যাপে লগ ইন সুবিধাও বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে কেন স্কাইপি বন্ধ রাখতে হবে সে ব্যাপারে কোন কিছুই নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়নি।

গতকাল সোমবার বিকেল পাঁচটার পর একাধিকবার চেষ্টা করেও স্কাইপিতে প্রবেশ করা সম্ভব হয়নি। এ ছাড়া স্মার্টফোন থেকে স্কাইপি অ্যাপ ব্যবহার করতে গেলেও লগ ইন করা সম্ভব হয়নি।

বিএনপি’র মনোননয়ন প্রার্থীদের সাক্ষাতকার গ্রহণের ক্ষেত্রে তারেক রহমান লন্ডন থেকে স্কাইপি ব্যবহার করে কথা বলছেন বলে খবর প্রকাশ হয়। একজন দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির প্রার্থীদের সাক্ষাতকার নেওয়ার বিষয়ে আপত্তি তোলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন গতকাল সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের জানান, তারেক রহমানের ভিডিও কলে কথা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের করার কিছু নেই, এক্ষেত্রে নির্বাচনী আচরণবিধিও প্রযোজ্য নয়। তার এ বক্তব্য প্রচারিত হওয়ার পর বিকেল পাঁচটা থেকে হঠাৎ করেই স্কাইপি বন্ধ পাওয়া যায়।

x

Check Also

বিকালে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন মির্জা ফখরুল

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নবঞ্চিতদের বিক্ষোভ ও দেশব্যাপী প্রতীক বরাদ্দের ডামাডোলের ...

Scroll Up