আপিলেও যাদের মনোনয়ন অবৈধ থেকে গেল

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাচাই-বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তে মনোনয়নপত্র  বাতিল হওয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা ৫৪৩টি আপিল আবেদনের শুনানি শুরু হয়েছে। আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে ১১ তলায় গঠিত এজলাসে আপিল আবেদনের এ শুনানি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আজ (বৃহস্পতিবার) প্রথম দিন ১৬০ জনের আপিল শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। তবে প্রথম দিনে মতো শুনানিতে আপিলেও অনেকের মনোনয়ন অবৈধ থেকে গেল।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, বেগম কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এ আপিল শুনানি করছেন। এজলাসে ইসি সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদও উপস্থিত রয়েছেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দিনাজপুর-১-এর পারভেজ, মাদারীপুর-১-এর জহিরুল মিন্টু, ফেনী-১-এর মিজানুর রহমান, কিশোরগঞ্জ-৩-এর মিজানুল হক, ময়মনসিংহ-৪-এর আবু সাইদ মহিউদ্দিন, ২৯৯ রাঙ্গামাটির অমর কুমার দে, বগুড়া-৪-এর আশরাফুল হোসেন আলম (হিরু আলম), মৌলভীবাজার-২-এর মহিবুল কাদির চৌধুরী, ফেনী-৩-এর হাসান আহমদের মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর নির্ধারিত সময়ে ৫৪৩টি আপিল আবেদন আমরা পেয়েছি। পুরো কমিশন ৬ থেকে ৮ ডিসেম্বর তা শুনবে। শুনানি শেষে আপিলের রায় সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেয়া হবে।

কমিশন সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার থেকে গতকাল বুধবার পর্যন্ত আপিল গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। তিন দিনে মোট ৫৪৩ জন আপিল করেছেন। প্রথম দিনে ৮৪, দ্বিতীয় দিনে ২৩৭ ও তৃতীয় দিনে ২২২টি আবেদন জমা পড়ে নির্বাচন কমিশনে।

এদিকে আজ (বৃহস্পতিবার) আপিল আবেদনের ক্রমিক ১ থেকে ১৬০ নম্বর পর্যন্ত শুনানি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ১৬১ থেকে ৩১০ নম্বর পর্যন্ত আগামীকাল শুক্রবার এবং শেষ দিন ৮ ডিসেম্বর (শনিবার) ৩১১ থেকে ৫৪৩ নম্বর পর্যন্ত আবেদনের আপিল শুনানি গ্রহণ করবে কমিশন।

উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, তফসিল অনুযায়ী একাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩০ ডিসেম্বর। গত ২৯ নভেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ও ২ ডিসেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র বাছাই। এদিন নির্বাচনে ৩০০ সংসদীয় আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য জমা দেওয়া ৩ হাজার ৬৫ মনোনয়নপত্রের মধ্যে ৭৮৬টি বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা, যাঁদের মধ্যে বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন দলের শক্তিধর প্রার্থীও রয়েছেন। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। আর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে ১০ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ দেয়ার পর থেকে প্রার্থী ও তার সমর্থকরা নির্বাচনী এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন।

x

Check Also

বিকালে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন মির্জা ফখরুল

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নবঞ্চিতদের বিক্ষোভ ও দেশব্যাপী প্রতীক বরাদ্দের ডামাডোলের ...

Scroll Up