নৌকা প্রতীক নিয়ে ১৯ নারী প্রার্থীর জয়

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিভিন্ন দল ও জোটের হয়ে মোট ৬৯ জন নারী প্রার্থী ছিলেন। ঘোষিত ফল অনুযায়ী গতকাল রবিবার রাত ১২টা পর্যন্ত নৌকা প্রতীক নিয়ে মোট ১৯ নারী প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। তাঁদের সবাই নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন।

গোপালগঞ্জ-৩ আসন থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো এমপি নির্বাচিত হলেন তিনি। নৌকা প্রতীক নিয়ে দুই লাখ ২৯ হাজার ৫৩৯ ভোট পেয়েছেন তিনি। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির এস এম জিলানী ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১২৩ ভোট।

এদিকে রংপুর-৬ আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি পেয়েছেন দুই লাখ ৩৪ হাজার ৪২৬ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাইফুল ইসলাম পেয়েছেন ২৪ হাজার ৫৩ ভোট।

নেত্রকোনা-৪ আসনে তিন নারী প্রার্থীর মধ্যে তৃতীয়বারের মতো বিজয়ী হলেন রেবেকা মমিন। বেসরকারি হিসাব অনুযায়ী দুই লাখ চার হাজার ৬০৩ ভোট পেয়েছেন তিনি। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তাহমিনা জামান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৮ হাজার ১০৫ ভোট।

এ ছাড়াও আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে জয়লাভ করেছেন-

ফরিদপুর-২ : আওয়ামী লীগের সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ২ লাখ ১৯ হাজার ২০৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী। নিকটতম বিএনপির শামা ওবায়েদ রিংকু পেয়েছে ১৪ হাজার ৮৮৫ ভোট।

ঢাকা-১৮ : আওয়ামী লীগের অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন ৩ লাখ ২ হাজার ৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শহীদউদ্দিন মাহমুদ পেয়েছেন ৭১ হাজার ৭৯২ ভোট।

চাঁদপুর-৩ : আওয়ামী লীগের ডাক্তার দীপু মনি ৩ লাখ ৪ হাজার ৮১২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শেখ ফরিদ আহম্মেদ পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৫০১ ভোট।

গাজীপুর-৪ : আওয়ামী লীগের সিমিন হোসেন রিমি ২ লাখ ৩ হাজার ৩২৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শাহ রিয়াজুল হান্নান পেয়েছেন ১৮ হাজার ৫২৮ ভোট।

মুন্সীগঞ্জ-২ (টঙ্গীবাড়ি-লৌহজং) : সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি নৌকা প্রতীকে ২ লাখ ১৫ হাজার ৩৮৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী মিজানুর রহমান সিনহা পেয়েছেন ১৪ হাজার ৬৫ ভোট।

যশোর-৬ (কেশবপুর) : আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইসমাত আরা সাদেক ১ লাখ ৫৪ হাজার ৫৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আবুল হোসেন আজাদ ৫ হাজার ৫৪৮ ভোট পেয়েছেন।

কক্সবাজার-৪ : আওয়ামী লীগের শাহিনা আক্তার চৌধুরী ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৭৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শাহজাহান চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৩৭ হাজার ১৮ ভোট।

বাগেরহাট-৩: আওয়ামী লীগের হাবিবুন নাহান তালুকদার ১ লাখ ৮৮ হাজার ৯০৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী জামায়াত নেতা আব্দুল ওয়াদুদ শেখ পান ১৩ হাজার ৪০৮ ভোট।

মানিকগঞ্জ-২ : আওয়ামী লীগের মমতাজ বেগম ২ লাখ ৭৮ হাজার ৮১৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মইনুল ইসলাম খান শান্ত ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৩১ ভোট।

সুনামগঞ্জ-২ (দিরাই-শাল্লা) : আওয়ামী লীগের জয়া সেন গুপ্তা (নৌকা প্রতীকে) ১ লাখ ২৪ হাজার ১৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্যফ্রন্টের পেয়েছেন নাছির উদ্দিন চৌধুরী (ধানের শীষ) ৬৭ হাজার ৫৮৭ ভোট পেয়েছেন।

গাজীপুর-৫ : আওয়ামী লীগের মেহের আফরোজ চুমকি ২ লাখ ৭ হাজার ৬৯৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী। বিএনপির একে ফজলুল হক খান মিলন পেয়েছেন ২৭ হাজার ৯৭৬ ভোট।

কুমিল্লা-২ : আওয়ামী লীগের সেলিমা আহমাদ মেরী ২ লাখ ৫ হাজার ৫৬৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির খন্দকার মোশাররফ হোসেন পেয়েছেন ২০ হাজার ১৫৬ ভোট ।

খুলনা-৩ : আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান ১ লাখ ৩৪ হাজার ৮০৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির প্রার্থী রকিবুল ইসলাম বকুল পান ২৩ হাজার ৬০৬ ভোট।

নোয়াখালী-৬ : আওয়ামী লীগের আয়শা ফেরদাউস (নৌকা প্রতীকে) ২ লাখ ১০ হাজার ১৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ফজলুল আজিম (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৪ হাজার ৭১৫ ভোট।

গাইবান্ধা-২(সদর) : আওয়ামী লীগের মাহাবুব আরা বেগম গিনি ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৬১৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। বিএনপির মো. আব্দুর রশীদ সরকার পেয়েছেন ৬৮হাজার ৬৭০ ভোট।

ফেনী-১ : মহাজোটের জাসদ নেতা শিরীন আক্তার ২ লাখ ৪ হাজার ২৫৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী। তার নিকটতম ধানের শীষের রফিকুল ইসলাম মজনু পেয়েছেন ২৫ হাজার ৪৯৪ ভোট।

x

Check Also

১১৬ উপজেলায় ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

এমএনএ রিপোর্ট : নানা অনিয়ম আর ভোট বর্জনের মধ্য দিয়ে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ...

Scroll Up