হজের বিমান ভাড়া কমল ১০ হাজার টাকা

এমএনএ রিপোর্ট : চলতি বছর যারা হজ করতে সৌদি আরব যাবেন, তাদের বিমান ভাড়া লাগবে ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা, যা গতবারের চেয়ে ১০ হাজার ১৯১ টাকা কম।

সচিবালয়ে আজ বৃহস্পতিবার বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভার পর বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এ কথা জানান।

মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গতবছর যাত্রীপ্রতি ভাড়া ছিল ১ লাখ ৩৮ হাজার ১৯১ টাকা। এ বছর তা কমিয়ে আনা হয়েছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ, বিমান ও পর্যটন সচিব মহিবুল হক, ধর্মসচিব আনিছুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং হজ এজেন্সিগুলোর সংগঠন হাব ও ট্র্যাভেল এজেন্টদের সংগঠন আটাবের প্রতিনিধিরা আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের নতুন সরকারের ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর শেখ মো. আবদুল্লাহ বলেছিলেন, প্রতিবছরই হজের মৌসুমে নানা অনিয়মের অভিযোগ ‘স্বাভাবিক ঘটনায়’ পরিণত হয়েছে। তিনি চান না, হজ নিয়ে এবার কোনো কথা হোক।

মাহবুব আলী বলেন, ‘এ বছর হজে যাওয়া যাত্রীদের বিমান ভাড়া কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রতি হজযাত্রীকে এবার বিমান ভাড়া দিতে হবে এক লাখ ২৮ হাজার টাকা, যা গত বছরের তুলনায় ১০ হাজার ১৯১ টাকা কম। গত বছর হজে বিমান ভাড়া ছিল এক লাখ ৩৮ হাজার ১৯১ টাকা। যাত্রীরা যেন সুন্দর ব্যবস্থাপনায় হজ করতে পারেন, সেজন্য বিমান কর্তৃপক্ষ তাদের দায়িত্ব পালন করবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। সবার বক্তব্য শুনেছি। সবার প্রচেষ্টায় আমরা মানুষের ভোগান্তি কমাতে পারি’।

প্রেস বিফিংয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ বলেন, ‘সারা দেশের হজযাত্রীরা যাতে সুন্দরভাবে হজ পালন করতে পারেন, সংশ্লিষ্টরা সেই পদক্ষেপ নেবেন। হজযাত্রীদের চোখ দিয়ে যারা পানি ঝড়াবে, তাদের চোখ দিয়ে আমরা রক্ত ঝড়িয়ে ছাড়ব। এটা আমার পরিষ্কার কথা। এক্ষেত্রে আশা করি, হজ সংশ্লিষ্ট সবাই সতর্ক থাকবেন। আমরা আল্লাহর মেহমানদের খেদমত করার সুযোগ নিতে চাই। এটা আমাদের দায়িত্ব’।

সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশ থেকে গতবছর এক লাখ ২৬ হাজার ১৯৮ জন হজ করার সুযোগ পান। নিবন্ধন করলেও ভিসা জটিলতা, অসুস্থতা এবং ‘ব্যক্তিগত কারণে’ তাদের মধ্যে ৬২৭ জন যেতে পারেননি।

গতবছর হযাত্রীদের মধ্যে ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন জেদ্দায় পৌঁছান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ফ্লাইটে। বাকিদের সৌদি এয়ারলাইনসের ফ্লাইটে সৌদি আরবে পাঠানো হয়।

বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২০১৭ সালে হজ কার্যক্রম পরিচালনায় বাংলাদেশ ও সৌদি আরবে অনিয়মের অভিযোগের তদন্ত শেষে চূড়ান্তভাবে ৩৭ হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এছাড়াও জামানত বাজেয়াপ্ত, হজ লাইসেন্স বাতিল, স্থগিত, সর্বনিম্ন এক লাখ থেকে ১৫ লাখ টাকা আর্থিক জরিমানা, হজযাত্রীদের টিকিটের টাকা ফেরত ও নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে সব প্রকার কার্যক্রম থেকে বিরত থাকাসহ নির্দিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়।

x

Check Also

আজ বৃহস্পতিবারের দিনটি আপনার কেমন যাবে?

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : আজ ২৫ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার। বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। নতুন সূর্যালোকে আজ ...

Scroll Up