ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহজুড়ে শৈত্যপ্রবাহ থাকবে

এমএনএ রিপোর্ট : তাপমাত্রা কমে গিয়ে দেশের বিস্তৃর্ণ অঞ্চলে শুরু হয়েছে শৈত্যপ্রবাহ। মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহটি ফেব্রুয়ারির মাসের প্রথম সপ্তাহজুড়ে থাকতে পারে। মূলত এরপরই শীত বিদায় নেবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

দেশের অধিকাংশ স্থানে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এটি চলতি বছরের শেষ শৈত্যপ্রবাহ। এই শৈত্য প্রবাহ ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত চলবে।

গতকাল মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের তাপমাত্রা অনেকটা কমে গেছে। এর সঙ্গে বইছে উত্তরের ঠান্ডা বাতাস। আজ বুধবার শীত ঋতুর শেষ মাস মাঘের ১৭ তারিখ।

গতকাল মঙ্গলবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ৯ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। একদিনের ব্যবধানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ দশমিক ৩ ডিগ্রি কমে গেছে।

আজ বুধবার ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, একদিন আগে এই তাপমাত্রা ছিল ১৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি।

তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে হলে মাঝারি ও তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রির চেয়ে বেশি থেকে ১০ ডিগ্রির মধ্যে হলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলে। তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে হলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।

আজ বুধবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, রাজশাহী, পাবনা, রংপুর, পঞ্চগড়, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, খুলনা, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল, ভোলা ও মৌলভীবাজার জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এ সময়ে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পেতে পারে বলেও পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে এবং সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

এছাড়া উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। বাসস

এবার মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয় গত ২৬ ডিসেম্বর, শৈত্যপ্রবাহ শেষ হয় ২৩ জানুয়ারি। এর মধ্যে মৃদু ও মাঝারি থেকে তীব্র আকারও ধারণ করে শৈত্যপ্রবাহ। এর তাপমাত্রা অনেকটাই বেড়ে গিয়ে গরম পড়তে শুরু করেছি।

x

Check Also

চীনা ডেমু ট্রেন নতুন করে আর নয় : শেখ হাসিনা

এমএনএ রিপোর্ট : দেশের ডিজেল ইলেকট্রিক মাল্টিপল ইউনিট (ডিইএমইউ) ট্রেন চালুর ছয় বছর পর চলাচল ...

Scroll Up