Exif_JPEG_420

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়ায় কয়লা উত্তোলন বন্ধ

এমএনএ রিপোর্ট : দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি থেকে কয়লা উত্তোলন সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে। খনির উৎপাদনশীল ১৩১৪ নম্বর কোল ফেজে মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ১০ দিন ধরে কয়লা উত্তোলন হচ্ছে না।

উত্তোলন সচল রাখতে ১৩০৮ নম্বর ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন পুনরায় শুরু করা হবে বলে জানানো হয়েছে। ১৩১৪ নম্বর ফেজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সরিয়ে ১৩০৮ নম্বর ফেজে স্থাপন করে পুনরায় উত্তোলনে যেতে অন্তত দেড় মাস সময় লাগবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

খনির ১৩১৪ নম্বর কোল ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন শুরু হয় ২০১৮ সালের ৯ সেপ্টেম্বর। এ ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন হয়েছে দুই লাখ ৮০ হাজার টন। ১৩১৪ নম্বর ফেজে ব্যবহৃত উৎপাদন যন্ত্রপাতি সরিয়ে ১৩০৮ নম্বর ফেজে স্থাপনের কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে।

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএমসিএল) জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআরও) একেএম বদরুল আলমের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হলে জানান, খনির কয়লা উৎপাদন বন্ধের বিষয়টি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। উৎপাদনশীল ১৩১৪ নম্বর কোল ফেজে উত্তোলনযোগ্য কয়লার মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ২১ জানুয়ারি থেকে খনির উৎপাদন বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, একটি ফেজের কয়লা উত্তোলন শেষ হলে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সরিয়ে নিয়ে নতুন ফেজে স্থাপনের জন্য ৪০ থেকে ৪৫ দিন সময় লাগে। এ ছাড়া এ সময়ে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ক্রটিবিচ্যুতি ধরা পড়লে মেরামতের জন্য বাড়তি সময়ের প্রয়োজন হয়। ফলে কয়লা উৎপাদন সাময়িক বন্ধ থাকে। কয়লা খনির সার্ফেস ভাগের কোল-ইয়ার্ডে বর্তমান ১০ থেকে ১২ হাজার টন কয়লা মজুদ রয়েছে। নতুন ফেজ চালু হলে এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।

x

Check Also

পাকিস্তান সীমান্তে ১৪০ যুদ্ধবিমান নিয়ে ভারতের মহড়া

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভারতীয় বিমানবাহিনী ১৪০টি যুদ্ধবিমান নিয়ে শক্তিশালী সামরিক মহড়া চালিয়েছে। পাকিস্তান সীমান্ত ...

Scroll Up