রোনালদোর হ্যাটট্রিকে বান্ধবী জিওর্জিনার কান্না

এমএনএ স্পোর্টস ডেস্ক : অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের জালে রোনালদোর হ্যাটট্রিক গোলে বান্ধবী জিওর্জিনা কেঁদেছেন। আসলে অনেক সময় আনন্দেও কান্না আসে। সেই আনন্দটা যদি হয় বিশাল এক চাপ থেকে হাঁফ ছেড়ে বেঁচে ওঠার বড় উপলক্ষ, তাহলে তো কান্না আসাটাই স্বাভাবিক।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম পর্বের ম্যাচে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠে গিয়ে ২-০ গোলে হেরে এসেছিল রোনালদোর দল জুভেন্টাস। তখনই মাদ্রিদে বিদ্রুপ আর অপমানের শিকার হয়েছিলেন তিনি। রোনালদোর মনে হয়তো সেই বিদ্রুপ লেগেছিল। অপমানের প্রতিশোধ নেয়ার তীব্র ইচ্ছাটাও জেগে উঠেছিল তার মধ্যে।

অবশেষে মঙ্গলবার রাতে জুভেন্টাসের মাঠে সেই অ্যাটলেটিকোকে আতিথেয়তা দিয়ে তার সব ক্ষোভ প্রশমন করলেন সিআর সেভেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির সমান ৮টি হ্যাটট্রিক করে সেই অ্যাটলেটিকোকে বিদায়ের টিকিট হাতে ধরিয়ে দিয়েছেন রোনালদো।

জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা যখন মাঠে হ্যাটট্রিক করে আনন্দে ভাসালেন তুরিনের দর্শকদের, তখন গ্যালারিতে উপস্থিত তারই বান্ধবী জিওর্জিনা রদ্রিগেজ আনন্দে চোখের অশ্রু ছেড়ে দেন। তার পাশে বসা রোনালদো জুনিয়ার উন্মত্তের মত পিতার গোলের উদযাপন করতে থাকেন।

ক্লাব বদলালেও ইউরোপ সেরার মঞ্চে বদলায়নি রোনালদোর। ২-০ গোলে পিছিয়ে থেকে যখন দল বিদায় নেয়ার শঙ্কায়, সেই কঠিন মুহূর্তেও আগের বছরগুলোতে লজ ব্ল্যাঙ্কোজদের হাল ধরতেন তিনি। প্রথম লেগে পিছিয়ে থাকা জুভেন্তাসের হয়েও মঙ্গলবার ঠিক একই দায়িত্ববোধের পরিচয় দিলেন তিনি।

১৯৯৫-৯৬ পর রোনালদোর আগমণে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তুরিনের ক্লাবটির দীর্ঘ খরা কাটে কি না, সেটার উত্তর দেবে সময়; কিন্তু ক্ষুধার্ত রোনালদোর অনবদ্য হ্যাটট্রিকে ভর করেই এদিন শেষ আটের টিকিট নিশ্চিত করে জুভেন্তাস। রোনালদোর হ্যাটট্রিক দেখে গ্যালারিতে উপস্থিত তার গর্বিত বান্ধবি জিওর্জিনা রদ্রিগেজের চোখে দেখা দেয় আনন্দাশ্রু।

এমনিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় জিওর্জিনা। মঙ্গলবার রোনালদোর হ্যাটট্রিকের পর আবেগঘন জর্জিনা প্রিয়তমকে অভিনন্দন জানাতে বেছে নিলেন ইনস্টাগ্রাম। আলিয়াঞ্জা স্টেডিয়ামে বসেই রোনালদোর ছেলেবেলার একটি ছবি পোস্ট করে লিখলেন অনেক কথা। যার মর্মার্থ করলে দাঁড়ায়, ‘এমন জয় কেবল তোমারই প্রাপ্য। তুমি যে ক্লাবের হয়েই মাঠে নামো না কেন, এই জয় তোমার একাগ্রতার। তুমি তোমার সতীর্থদের ট্রেলার। দলের প্রত্যেকে তোমায় ভালোবাসে।’

এ প্রসঙ্গে আবেগঘন জিওর্জিনার আরও সংযোজন, ‘কর্মফল বলে একটা জিনিস আছে। যা স্বয়ং ঈশ্বর তোমায় দিচ্ছেন। কারণ এই বিশ্বফুটবলের শাসক তুমি। আমরা তোমাকে ভালোবাসি ক্রিশ্চিয়ানো।’ বান্ধবির এমন আবেগমাখা পোস্ট নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তা নিমেষে ভাইরাল হয়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে।

x

Check Also

সিরাজগঞ্জে হানিফ পরিবহনের ২ বাসের সংঘর্ষে নিহত ৩

এমএনএ জেলা প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ এলাকায় বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে হানিফ পরিবহনের ...

Scroll Up