পদ্মা সেতুর দশম স্প্যান বসছে আজ

এমএনএ রিপোর্ট : মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর দশম স্প্যান বসছে আজ। সেতুর ১৩ ও ১৪ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানোর মাধ্যমে দৃশ্যমান হবে দেড় কিলোমিটার।

আজ বুধবার সকাল ৮টা ৩২ মিনিটের দিকে মাওয়া কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে তিন হাজার ৬০০ টন ধারণক্ষমতার তিয়ান-ই ভাসমান ক্রেনে করে স্প্যানটি নিয়ে যাওয়া শুরু হয়। স্প্যানটি ধুসর রংয়ের ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ও ৩ হাজার ১৪০ টন ওজনের।

পদ্মা সেতুর প্রকৌশলী জানান, স্প্যানটি নিয়ে যাত্রা শুরু করা হয়েছে। আবহাওয়াসহ সবকিছু অনুকূলে থাকলে পৌঁছানোর পর স্প্যানটি বসানোর কার্যক্রম শুরু হবে। এবার দূরত্ব কম হওয়ায় আজ দুপুরের মধ্যেই বসানো সম্ভব হবে বলে আমরা আশাবাদী।

এর আগে গত ২২ মার্চ পদ্মা সেতুতে বসানো হয় নবম স্প্যান। ওইদিন সকাল সোয়া ৮টার দিকে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানো হয়। এর ফলে তখন দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতুর ১৩৫০ মিটার (১.৩৫ কিলোমিটার)।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি পদ্মা সেতুতে বসানো হয় অষ্টম স্প্যান। সেদিন দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ৩৫ ও ৩৬ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানো হয়। এর ফলে তখন দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতুর টানা ১ হাজার ২০০ মিটার।

যদিও পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যানটি বসানোর কথা ছিল মাওয়া প্রান্তে। কিন্তু নদীর তলদেশের মাটি নরম থাকায় এ পারের কাজ দেরিতে শুরু হয়। তাই জাজিরায় কাজ শুরু হয়।

২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যানটি বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মূল সেতুতে মোট ২৯৪টি পাইল আছে, যার মধ্যে নদীর মধ্যে ২৬২টি পাইল। মূল সেতুর ২৯৪টি পাইলের মধ্যে ইতোমধ্যে ২৪৭টি পাইলের কাজ শেষ হয়েছে। ২৯৪টি পাইলে মোট ৪২টি পিলার। সম্প্রতি শেষ হয়েছে সেতুর ৬ ও ৭ নম্বর পিলারের পাইল ড্রাইভিংয়ের কাজ।

x

Check Also

ভোজন রসিকদের পছন্দ ইলিশ খিচুড়ি

এমএনএ ফিচার ডেস্ক : ইলিশ খিচুড়ি কার না পছন্দ। বিশেষ করে ভোজন রসিকদের কাছে পছন্দের ...

Scroll Up