সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত বিপজ্জনক সেলফি

এমএনএ সাইটেক ডেস্ক : সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল একটি সেলফি। এটি ইতিমধ্যে সারা বিশ্বে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। এখন পর্যন্ত ১৪ হাজার বারের বেশি শেয়ার হয়েছে ছবিটি।

গত মঙ্গলবার সেলফিটি ফেসবুকে পোস্ট করা হয়। এতে ক্যাপশন জুড়ে দেয়া হয়-‘অফিসে অন্যরকম একটা দিন’।

সেলফিটিতে দেখা গেছে, কোনো এক ইকো পার্কে দুই গরিলার সঙ্গে সেলফি তুলছেন এক আফ্রিকান ব্যক্তি। দূরে আরেক ব্যক্তি দাঁড়িয়ে।

সেলফিটির যে বিষয় নেট জগতে আর্কষণ করেছে, তাহলো মানুষের সঙ্গে ওই দুই গরিলার অসাধারণ পোজ। সেলফির জন্য গরিলা দুটির পোজ মানুষের পোজকেও হার মানিয়েছে।

সেখানে মানুষটির পেছনে একটি গরিলা সোজা হয়ে বামদিকে মাথা সামান্য হেলে দিয়ে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে আছে। অপর গরিলাটি সামান্য সামনের দিকে ঝুঁকে তার পোজ দিয়েছে। এটাও ক্যামেরা দিকে তাকিয়ে রয়েছে।

অনেকেই সেলফিটি প্রথম দেখে বিশ্বাসই করতে চাইছেন না যে এগুলো গরিলা। কেউ কেউ বলছে মানুষই গরিলার বেশ ধারণ করেছে। যে কারণে তাদের আচরণ এমন মানুষের মতন। আর সেলফি তুলতে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন।

জানা গেছে, মানুষ নয় পেছনের ওগুলো গরিলাই।

আর্ন্তজাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতে প্রকাশ, সেলফিটি আফ্রিকার গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গোর ভিরুঙ্গা ন্যাশনাল পার্কে তোলা হয়েছে। এটি তুলছেন পশুশিকার ঠেকাতে গঠিত একজন সৈনিক।

ছবিটি প্রসঙ্গে পার্কটির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, সেলফি তোলা গরিলা দুটির প্রতিটির ওজন ৪০০ পাউন্ড (সাড়ে চার মণ) পর্যন্ত হতে পারে।

বিপজ্জনক সেলফি তোলা প্রসঙ্গে ওয়েবসাইটটি জানিয়েছে, স্থানীয় পুরুষ ও নারীদের বাছাই করে টানা ৬ মাস ব্যাপক প্রশিক্ষণের মধ্য দিয়ে পশুশিকার ঠেকানোর জন্য সৈনিক তৈরি করা হয়ে থাকে। এসব পশুদের সঙ্গে তারা নিজেদের বেশ মানিয়ে নিয়েছে।

তবে ওয়েবসাইটটির এমন বক্তব্যের সমালোচনায় দেশটির অনেকে জানিয়েছেন, বিপজ্জনক সেলফি তোলাকে অনুৎসাহীত করা উচিত। কারণ এই পার্কে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত ১৭৯ জন পশুর আক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন।

x

Check Also

বিএনপির মনোনয়ন পেলেন রুমিন ফারহানা

এমএনএ রিপোর্ট : একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে দলের সহআন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানাকে ...

Scroll Up