Don't Miss
Home / হোম স্লাইডার / ড্রেসিংরুমে ‘আমরা করব জয়’ গান গেয়ে উদযাপন
লড়াইটুকু করতে

ড্রেসিংরুমে ‘আমরা করব জয়’ গান গেয়ে উদযাপন

এমএনএ খেলাধুলা ডেস্ক : জয় কিংবা ড্র দূরে থাক, বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে স্রেফ লড়াইটুকু করতে পারবে-এমন বিশ্বাসও ছিল না অনেকেরই। তবে এবার সেই ইতিহাস পাল্টে গেল। তাসমান পাড়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটের নতুন সূর্যোদয় হয়েছে।নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ঐতিহাসিক জয় পেল বাংলাদেশ। কিউইদের মাটিতে এর আগে কোনো ফরম্যাটেই জিততে পারেনি টাইগার বাহিনী। সেই গেরো কাটল ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণ দিয়েই, তাও আবার ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে। অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়, অসাধারণ-কোনো বিশেষণই এ জয়কে উপমা দেওয়ার জন্য যথেষ্ট নয়।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এ জয়ে অনেক প্রথমের জন্ম দিয়েছে বাংলাদেশ। দেশের বাইরে টপ পাঁচ টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে প্রথম জয়ও এটি। তবে এমন জয়ের পরও মাঠে উল্লাস করতে দেখা যায়নি ক্রিকেটারদের। যতটা সম্ভব নিজেদের সংযত রেখেই ম্যাচ পরবর্তী আনুষ্ঠানিকতা সারেন মুমিনুল-মুশফিকরা।তবে ড্রেসিংরুমে ফিরে আর নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি। বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেন ক্রিকেটাররা। ‘আমরা করব জয়’ গান গেয়ে ঐতিহাসিক জয় উদযাপন করতে দেখা যায় লাল-সবুজ বাহিনীকে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে আপলোড করা টাইগারদের উদযাপনের ভিডিওতে দেখা যায়, সবার থেকে একটু বেশিই উৎফুল্ল মুশফিকের আনন্দ যেন একটু বেশিই। তিনি সবাইকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘উপভোগ করতে হবে ভাইয়েরা, উপভোগ কর।’ এরপরই সম্মিলিত কণ্ঠে আমরা করব জয় গান গেয়ে উঠে সবাই।এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়ের পর অভিনন্দনের বন্যা বইছে। এদিকে টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালও সতীর্থদের অভিনন্দন বার্তা দিয়েছেন।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) ম্যাচশেষে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেওয়া এক বার্তায় তামিম লিখেছেন, ‘অসাধারণ জয়, ঐতিহাসিক জয়। গোটা দলকে অভিনন্দন।বছরের পর বছর বছর, সফরের পর সফর আমরা নিউজিল্যান্ড থেকে খালি হাতে ফিরেছি। এবার অনেক কারণেই পরিস্থিতি ছিল আরও কঠিন। কিন্তু সব বাধা দূর করে দারুণ এক জয় এনে দিল এই দল। নিউজিল্যান্ডে গিয়ে নিউজিল্যান্ডকে হারানো এখন ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন কাজগুলোর একটি। আমরা দেখালাম, আমরা পারি!

সবচেয়ে ভালো লাগার বিষয়, সম্পূর্ণ দলীয় প্রচেষ্টার জয় এটি। দারুণ স্পিরিটেড ক্রিকেট খেলেছে দল। এবাদতের অসাধারণ বোলিংয়ে কোনো প্রশংসাই যথেষ্ট নয়। জয় থেকে শান্ত, লিটন থেকে মিরাজ, ইয়াসির, শান্ত, এমনকি বদলি নেমে দুর্দান্ত শেষ ক্যাচটি নেওয়া তাইজুল এবং দলের প্রতিটি সদস্য, সবার সম্মিলিত অবদানের জয় এটি।

এদিকে টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের যেন তর সইছিল না। ম্যাচ জেতা থেকে ৬ রান দূরে থাকতেই তিনি টুইট করেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য বছরটা কী দারুণভাবে শুরু হলো। অধিনায়ক, খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফসহ সবাইকে অভিনন্দন।’

x

Check Also

কোর্সে ভর্তিতে

২০২২ সালের বিএড কোর্সে ভর্তির আবেদন শুরু

এমএনএ শিক্ষা ও ভর্তি ডেস্ক : বিএড, বিপিএড, এমএডসহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বিভিন্ন মাস্টার্স কোর্সে ...

Scroll Up