Don't Miss
Home / আজকের সংবাদ / আন্তর্জাতিক / এশিয়া / দক্ষিণ কোরীয় জলসীমায় মার্কিন সাবমেরিন

দক্ষিণ কোরীয় জলসীমায় মার্কিন সাবমেরিন

এমএনএ ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : পরমানু শক্তিচালিত মার্কিন সাবমেরিন ইউএসএস-মিশিগান দক্ষিণ কোরীয় জলসীমায় প্রবেশ করেছে।

মিসাইল সজ্জিত ইউএসএস মিশিগান সাবমেরিনটি কোরীয় উপদ্বীপের দিকে আসতে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস কার্ল ভিনসনের নেতৃত্বাধীন নৌবহরের সঙ্গে যোগ দেয় বলে জানা গেছে। খবর সিএনএন, বিবিসি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই সাবমিরনটি কোরীয় জলসীমায় প্রবেশ করলো।

এমন একদিন পরমানু শক্তি চালিত সাবমেরিনটি দক্ষিণ কোরিয়ায় ঢুকল যেদিন উত্তর কোরিয়া তাদের সেনাবাহিনীর ৮৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করবে।

মার্কিন নৌ-বাহিনীর পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, দক্ষিণ কোরিয়ার আমন্ত্রণে যৌথ মহড়ায় অংশ নিতে সাবমেরিনটি পাঠানো হয়েছে।

সাবমেরিনটিতে ১৫৪টি টমাহক মিসাইল, ৫০জন বিশেষ অপারেশনের সৈন্য ও মিনি সাবসহ অন্যান্য সমরাস্ত্র রয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, উত্তর কোরিয়াকে একটি শক্তিশালী বার্তা দেয়ার জন্যই সাবমেরিনটি পাঠানো হয়েছে।

এর আগে উত্তর কোরিয়া বলেছিল, মার্কিন নৌযান ডুবিয়ে দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছে তাদের সব সমরাস্ত্র।

নির্দেশ পাওয়ার পরপরই কোরীয় উপদ্বীপের দিকে রওনা না হওয়ায় কার্ল ভিনসন নৌবহরকে নিয়ে কিছুটা বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছিল, কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আদেশ অনুযায়ী নৌবহরটি এখন কোরীয় উপদ্বীপের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে। বহরটি ইতিমধ্যে পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে পৌঁছেছে।

উত্তর কোরিয়ার সরকারি ওয়েবসাইটে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র কোরীয় উপদ্বীপে যুদ্ধ শুরু করলে তাদের নিশ্চিহ্ন করে ফেলা হবে।

উত্তর কোরিয়া আজ তাদের সেনাবাহিনীর ৮৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছে। অতীতে এমন আয়োজনে পিয়ংইয়ংকে ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাতে দেখা গেছে।

গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, সেনাবাহিনীর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বড় ধরনের সামরিক মহড়া করছে উত্তর কোরিয়া।

দক্ষিণ কোরিয়ার একটি সংবাদ সংস্থার ভাষ্য, উত্তর কোরিয়া তাদের পূর্ব উপকূলে বড় ধরনের সামরিক মহড়া করছে।

এই প্রতিবেদনের সত্যতা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করেনি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

সিউল বলছে, তারা উত্তর কোরিয়ার সেনাবাহিনীর গতিবিধি ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য তারা প্রস্তুত।

দক্ষিণ কোরিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছে, তারা কোরীয় উপদ্বীপের পশ্চিমের জলভাগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সামরিক মহড়া করছে। এই মহড়ায় শিগগির কার্ল ভিনসনের নেতৃত্বাধীন রণতরিবহর যোগ দেবে।

উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে কাল বুধবার হোয়াইট হাউসে ব্রিফ হবে। এই ব্রিফে সব সিনেটরকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। একে বিরল ঘটনা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে সব পক্ষকে সংযম দেখানোর আহ্বান জানিয়েছে চীন।

গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে পাল্টাপাল্টি হুমকি-ধামকিতে কোরীয় উপদ্বীপজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

x

Check Also

মিয়ানমারে সামারিক জান্তার হত্যাযজ্ঞ বেড়েই চলেছে

এমএনএ আন্তর্জাতিক : মিয়ানমারে সামারিক জান্তার হত্যাযজ্ঞ বেড়েই চলেছে।  মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অব্যাহত বিক্ষোভে ...

Scroll Up