Don't Miss
Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / নতুন একটি ছোট্ট চাঁদ যুক্ত হচ্ছে পৃথিবীর সঙ্গে
চাঁদ

নতুন একটি ছোট্ট চাঁদ যুক্ত হচ্ছে পৃথিবীর সঙ্গে

এমএনএ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্কঃ পৃথিবীর কক্ষপথে যুক্ত হচ্ছে নতুন ছোট্ট চাঁদ- শুনতে অবাক মনে হচ্ছে? এখন থেকে কি তাহলে আকাশে দুইটা চাঁদ দেখা যাবে? মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা বলছে এটা কোনো গ্রহাণু নয় বরং পুরানো রকেট বা মহাকাশযানের ফেলে আসা কোন অংশ হতে পারে।

আর পৃথিবীর কক্ষপথে প্রবেশের পর তা পৃথিবী থেকে ২৭ হাজার মাইল দূরে অবস্থান করবে। এর নাম দেয়া হয়েছে ২০২০ এসও। নাসার সেন্টার ফর নিয়ার আর্থ অবজেক্ট স্টাডিজ এর পরিচালক ড পল কোডাস মনে করেন, এটি ১৯৬০ এর দশকে পাঠানো কোনো এক রকেটের অংশ।

সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পল বলেন, আমার মনে হয় এটা ওই সময়কার কোনো একটি বুস্টার রকেট। এটা সূর্যের চারদিকে ঘুরছে অনেকটা পৃথিবীর মতো করেই, একই কক্ষপথে আবার একই গতিতে।
এটা সাধারণত কোনো চন্দ্রাভিযানে পাঠানো রকেটের পক্ষেই সম্ভব। হয়তো চাঁদকে পার হয়ে যাবার পর সূর্যের চারদিকে এভাবে প্রদক্ষিণ করা শুরু করে সে। কোনো গ্রহাণুর পক্ষে এমন কক্ষপথ অর্জন করা স্বাভাবিক নয়, তবে সেটাও হতে পারে।

বুস্টার রকেটটির গতিপথ ও অবস্থান হিসাব করে পল মনে করছেন ১৯৬৬ সালের মহাকাশযানের অংশ এই রকেটটি। তিনি বলেন, ১৯৬৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বর পাঠানো সার্ভেয়ার ২ এর সঙ্গে অনেক মিল আছে এর।

এই মহাকাশযানটি পাঠানো হয়েছিল চাঁদে অবতরণের জন্য। তবে তাতে ব্যর্থ হয় সেটি, অবতরণের আগেই মহাকাশে বিধ্বস্ত হয় যানটি। নভেম্বরে পৃথিবীর বাইরের কক্ষপথে অবস্থান করবে ২০২০ এসও বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর এটা যদি বুস্টার রকেট না হয়ে গ্রহাণু হয়, তবে একে পৃথিবীর ‘ছোট্ট চাঁদ’ হিসেবে ধরে নেয়া হবে।

x

Check Also

পেনশনার

ঊর্ধ্বসীমা বাড়ছে পেনশনার সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগে

এমএনএ অর্থনীতি ডেস্কঃ ২০১৫ সালে নতুন পে স্কেল প্রদানের মাধ্যমে সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন প্রায় দ্বিগুণ ...

Scroll Up
%d bloggers like this: