Don't Miss
Home / হোম স্লাইডার / নেত্রকোণার সবজিতে নতুনত্ব নিয়ে এলো ‘রঙিন ফুলকপি’
রঙিন ফুলকপি

নেত্রকোণার সবজিতে নতুনত্ব নিয়ে এলো ‘রঙিন ফুলকপি’

এমএনএ শিল্প ও বাণিজ্য ডেস্কঃ ‘রঙিন ফুলকপি’ উৎপাদনের মাধ্যমে নেত্রকোণায় এবার সবজিতে এসেছে নতুনত্ব। চলতি রবি শস্য মৌসুমে বেগুনি ও হলুদ রঙের নতুন এ সবজি উৎপাদন করেন নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলার সদর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের বাসিন্দা কৃষক সন্তোষ বিশ্বাস।

তিনি তার বাড়ির পাশে প্রায় তিন শতাংশ জমিতে ২০০ ফুল কপি উৎপাদন করে ব্যাপক লাভবান হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সন্তোষ বিশ্বাস জানান, স্থানীয় কৃষি অফিসের উদ্যোগে ফসলের নিবিরতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে জামালপুর জেলা সদরে গিয়ে সেখানকার একটি ব্যক্তি মালিকানাধিন নার্সারি থেকে ২২০টি ‘রঙিন ফুলকপি’র চারা এনেছিলাম। এসব চারা এনে বপণ করার পর ২০০ চারার মাঝে কপি উৎপাদন হয়েছে প্রতিটিতে একটি করে। সাধারণ কপি চাষাবাদে যে পরিচর্যা ও খরচ হয় রঙিন এ কপি চাষাবাদেও একই পরিচর্যা ও খরচ হয়েছে। কিন্তু এ কপি চাষ করে লাভ হয়েছে সাধারণ কপির চেয়ে কয়েকগুণ বেশি। এ কপি প্রতিটি বিক্রি হয়েছে ১শ টাকা দামে। শখ করেই ক্রেতারা বেশি দামে কেনেন এ কপি।

তিনি আর জানান, রঙ্গিন কপি আবাদে রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার করা হয়নি। প্রয়োগ করা হয়েছে জৈব সার। এতে ফলন ভাল হয়েছে।

বারহাট্টা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাকিবুল হাসান জানান, এখানকার উৎপাদিত নতুন সবজি রঙিন ওই ফুল কপির বৈজ্ঞানিক নাম ‘কালার হাইব্রীড কলিফ্লাওয়ার’। এ সবজি নেত্রকোণা জেলার মাঝে কৃষক সন্তোষ বিশ্বাসই প্রথমবারের মতো উৎপাদন করেছেন। এটির বীজ ভারতীয়। এ সবজি পুষ্টিগুণে খুবই সমৃদ্ধ। বিশেষ করে এ সবজিতে ভিটামিন সি, ই, কে, ফলিক এসিড, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ প্রভৃতি রয়েছে। এটি ক্যানসার প্রতিরোধেও ভূমিকা রাখে।

তিনি আরও জানান, কৃষক সন্তোষ বিশ্বাস সারা বছরই নানা রকম শাক-সবজির আবাদ করেন। রঙিন ফুলকপি চাষ করে তিনি সফল ও লাভবান হয়েছেন। এ ফুলকপির সৌন্দর্য দেখতে তার জমিতে প্রতিদিনই ভিড় করছেন স্থানীয় কৃষকসহ উৎসুক জনতা। তার দেখাদেখি স্থানীয় অনেক কৃষকই এখন রঙিন ফুলকপি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

x

Check Also

একনেক

একনেকে অনুমোদিত হলো ১০ প্রকল্প

এমএনএ অর্থনীতি ডেস্কঃ ২ হাজার ২১৬ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ে দশটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে ...

Scroll Up