Don't Miss
Home / আজকের সংবাদ / আন্তর্জাতিক / যে কারণে যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচনের ফল ঘোষণায় দেরি
প্রেসিডেন্ট

যে কারণে যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচনের ফল ঘোষণায় দেরি

এমএনএ আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ কে হচ্ছেন পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট? না, এত সহজেই তা বলা যাচ্ছে না! প্রশ্নটির উত্তর পেতে অপেক্ষা করতেই হচ্ছে। কারণ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে ভোট গণনা নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা।

বিবিসি বলছে, ওইসব অঙ্গরাজ্যে পোস্টাল ভোট গণনা শুরু না হওয়ায় চূড়ান্ত ফল পেতে দেরি হচ্ছে এবং যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে আগামী চার বছরের জন্য কাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে বেছে নিচ্ছেন, তা নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন ২৩৮টি ইলেক্টোরাল ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন। অন্যদিকে রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ২১৩টি ইলেক্টোরাল ভোট। বিজয়ী হওয়ার জন্য প্রয়োজন ২৭০টি ইলেক্টোরাল ভোট।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, যেসব জায়গায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে, সেইসব জায়গায় পোস্টাল ভোট গণনা এখনও শুরুই হয়নি। ওইসব ভোটের হিসাব নির্বাচনী চিত্র পাল্টে দিতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছে।
ফ্লোরিডায় ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রায় জিতে যাচ্ছেন, এখানে ডেমোক্র্যাটরা আগে থেকেই কোনঠাসা। অ্যারিজোনায় ১৯৯৬ সালের পরে কোন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জেতেনি, এখানে বাইডেন জিতছেন। এখানকার তরুণ লাতিনরা বাইডেনের ‘টার্গেট ভোটার’ ছিলেন।

উইসকনসিন এবং পেনসিলভানিয়া এখনও পোস্টাল ভোট গণনা শুরু হয়নি। জর্জিয়া, মিশিগান এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় এখন পর্যন্ত মোটামুটি সমতা রয়েছে। তবে ভোট গণনা শেষ না হওয়ায় অপেক্ষা বাড়ছে ফল ঘোষণার।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হতে জনপ্রিয় ভোটে জেতার প্রয়োজন নেই। কিন্তু একজন প্রার্থীকে ইলেকটোরাল কলেজের ভোটে সংখ্যাগরিষ্টতা পেতে হয়।

বিশ্লেষকরা বলছেন, মার্কিন নির্বাচনে কিছু ‘ব্যাটল গ্রাউন্ড’ রাজ্য রয়েছে, যেখানকার ভোটাররা নির্বাচনের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। বাইডেন এবং ট্রাম্পের যেসব রাজ্যে জয়ের কথা, এখন পর্যন্ত প্রায় সবগুলোই তারা পেয়েছেন। তবে কিছু অঙ্গরাজ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে এবং সেগুলোতে বিরাজ করছে টানটান উত্তেজনা।

x

Check Also

যে প্রক্রিয়ায় ৭ আগস্ট থেকে সপ্তাহে ১ এক কোটি টিকা দেয়া হবে

এমএনএ জাতীয় ডেস্ক : আগামী ৭ আগস্ট থেকে এক সপ্তাহের মধ্যে অন্তত এক কোটি মানুষকে ...

Scroll Up